ইন্ট্রানেটে গতি কম, বিঘ্নিত হচ্ছে এনআইডি সেবা

0
12
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা ইন্ট্রানেটের গতি কম থাকায় জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। ফলে একদিকে যেমন নাগরিকের ভোগান্তি বাড়ছে, তেমনি ঝুলে থাকা আবেদনের সংখ্যাও বাড়ছে।
ইসি কর্মকর্তাদের ভাষ্য, মাঠ কর্মকর্তারা এ নিয়ে বারবার তাগাদা দিলেও সমস্যার সমাধান হচ্ছে না। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত মাসিক সমন্বয় সভায় অংশ নিয়েও তারা এ সমস্যার তুলে ধরেছেন।
ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার স্বাক্ষরিত বৈঠকের কার্যবিবরণী থেকে জানা গেছে, ইন্ট্রানেটের গতি কম থাকায় জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে। ফলে পেন্ডিং আবেদনের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে বলে জানিয়েছেন মাঠ কর্মকর্তারা।
এছাড়া নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মো. আবদুল বাতেনও জানিয়েছেন, ‘ভোটার তালিকা হালনাগাদ’ শীর্ষক প্রশিক্ষণের সময় প্রশিক্ষণার্থীরা ইন্ট্রানেট কানেকটিভিটি/গতি সংক্রান্ত সমস্যার কথা জানিয়েছিলেন। এসব আলোচনার প্রেক্ষিতে সিনিয়র মেইটেইনেন্স ইঞ্জিনিয়ার (আইসিটি অপারেশন) সভায় জানান, বিটিসিএল (বাংলাদেশে টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড) সব উপজেলায় এ সংক্রান্ত কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে। বর্তমানে রাউটার কনফিগারেশনের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এ কার্যক্রম সম্পন্ন হলে উপজেলা পর্যায়ে একই সঙ্গে ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) এবং মডেমের মাধ্যমে কার্যক্রম সম্পাদন করা যাবে। তখন ইন্ট্রানেট কানেকটিভিটি/গতি সংক্রান্ত সমস্যা থাকবে না।
সভা শেষে সিস্টেম ম্যানেজারকে মাঠ পর্যায়ে ভিপিএন সংযোগ দ্রুত শেষ করে ইন্ট্রানেট সমস্যা দূর করার নির্দেশনা দিয়েছেন ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার।
মাঠ পর্যায়ে এনআইডি সেবার গতি বাড়াতে গত এপ্রিলে বিটিসিএল-এর ভিপিএন সংযোগ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইসি। এ লক্ষ্যে ২৪ এপ্রিল ইসি ও বিটিসিএল-এর মধ্যে একটি চুক্তির স্বাক্ষরিত হয়। এর আগে মোবাইল অপারেটরগুলোর মডেম দিয়ে ভিপিএন চালিয়ে আসছিল ইসি।
কথা ছিল ওই চুক্তির ফলে মাঠ পর্যায়ে আর কোনো সমস্যা হবে না। ফলে স্থানীয় পর্যায়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ, এনআইডি সেবা, আঙ্গুলের ছাপ ম্যাচিং বা ব্যক্তি সনাক্তকরণসহ ইসির সব ধরনের কার্যক্রমে গতি বাড়বে।
ইন্ট্রানেট সংযোগের মাধ্যমেই নির্বাচনি ফলাফল পাঠানো, মাঠ পর্যায়ের সার্ভারের সঙ্গে এনআইডি সেন্ট্রাল সার্ভারের সংযোগসহ দাফতরিক চিঠি চালাচালি করে থাকে ইসি। বর্তমানে ইসির সার্ভারে ১১ কোটি ৩২ লাখের বেশি নাগরিকের তথ্য রয়েছে। এদের মধ্যে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ এনআইডি সংশোধন, স্থানান্তরসহ নানা ধরণের আবেদন করেন। আসে নতুন ভোটার হওয়ার আবেদনও। এই সব কাজের জন্যই প্রয়োজন ইন্ট্রানেট সংযোগ। এক্ষেত্রে ইন্ট্রানেটের গতি সমস্যা ইসির জন্য একটি বড় সমস্যা বলে মনে করেন সংস্থাটির কর্মকর্তারা।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here