করোনা কালেও থেমে নেই পরিবহনে চাঁদাবাজি!

0
29
728×90 Banner

মোঃরফিকুল ইসলাম মিঠু: মহামারী করোনাভাইরাস সংক্রামণের মধ্যেও কুমিল্লায় থেমে নেই গণপরিবহনে চাঁদাবাজী। সড়কে গাড়ি থামিয়ে এবং স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে কিছু অসাধু ব্যক্তি রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন পরিবহন থেকে অবৈধভাবে এই চাঁদা উত্তোলন করছেন।
তারমধ্যে কুমিল্লা লাকসাম আঞ্চলিক মহাসড়কের জেলার লালমাই উপজেলার বাগমারা বাজার এবং পদুয়ারবাজার বিশ^রোড এলাকায় এই চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম্য বেশি। সিএনজি চালতি অটোরিকশা থেকে অবৈধ চাঁদা আদায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী চালকরা। চাঁদাবাজী বন্ধের দাবিতে লালমাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন চালকরা। তাদের অভিযোগ, বাগমারা বাজারে কিছু ব্যক্তি রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে কল্যাণের কথা বলে
টোকেনের মাধ্যমে চালদের জিম্মি করে এই চাঁদা আদায় করেন। টাকা না দিলে গাড়ি চাবি নিয়ে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছেন।
সিএনজি চালক খালেক, মোমিন, মোসলেমসহ একাধিক চালক জানান, তাদের একটি সংগঠন রয়েছে। ২০০৪ সাল থেকে সিএনজি চালতি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন (১৫৬৯) নামে ওই সংগঠনের মাধ্যমে কুমিল্লা লাকসাম সড়কে গাড়ি চালিয়ে আসছেন। তখন পথে পথে কোন চাঁদা দিতে হয়নি। কিন্তু গত মে মাস থেকে স্থানীয় কিছু রাজনৈতিক নেতা বাগমারা বাজারে দাঁড়িয়ে সিএনজি চালকদের কাছ থেকে অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করে আসছেন। যা এক প্রকার চাঁদাবাজী। এই চাঁদা আদায় বন্ধের দাবিতে লালমাই উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম ইয়াসির আরাফাতের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।
চালকদের অভিযোগের বিষয়ে কুমিল্লা টমছম ব্রিজ সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের (১৫৬৭) সাধারণ সম্পাদক মো. আলম জানান, কুমিল্লা লাকসাম রোডে পদুয়ারবাজার বিশ^ এবং বাগমারা বাজার এলাকায় কিছু লোক রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে সিএনজি চালকদের থেকে অবৈধ চাঁদা আদায় করছেন এমন অভিযোগ পেয়েছি। সড়কে দাঁড়িয়ে চাঁদা আদায় আমাদের সংগঠনে কোন নিয়ম নেই। বাগমারা বাজারে যারাই চাঁদা আদায় করছেন তা নিয়মনীতির বাহিরে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে করছেন। আমরা এই চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের ব্যবস্থা চাই।
চালকদের অভিযোগে বাগমারা বাজার এলাকার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. শফিক ক্যাশিয়ার জানান, আমরা সিএনজি চালিক অটোরিকশা শ্রমিকদের কাছ থেকে ১০ টাকা হারে কল্যাণের টাকা নিচ্ছি। এর বাহিরে কোন টাকা উঠানো হচ্ছে না। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন আমাদের কার্যক্রম তদন্ত করে দেখেছেন।
লালমাই উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম ইয়াসির আরাফাত জানান, বাগমারা বাজারে চাঁদাবাজির অভিযোগে সিএনজি চালতি অটোরিকশার একটি পরিবহন সংগঠন থেকে লিখিত অভিযোগ করেছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা কি পেয়েছে খোঁজ নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here