গাছা থানা এলাকায় ডিজিটাল সার্ভিলেন্স সিসি ক্যামেরার শুভ উদ্বোধন

0
33
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : শনিবার ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যার পর গাজীপুর মহানগরের গাছা থানার ৩৪নং ওয়ার্ডের আই.এস.টি ভবন চত্বরে মাদক, সন্ত্রাস, কিশোর গ্যাং ও নারীর প্রতি ডিজিটাল ভায়োলেন্স বিরোধী সমাবেশে এবং গাছা থানা এলাকায় ডিজিটাল সার্ভিলেন্স সিসি ক্যামেরা এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে, বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও গাজীপুর ২ আসন থেকে বার বার নির্বাচিত সাংসদ সদস্য আলহাজ্ব জাহিদ আহসান রাসেল এম.পি বলেছেন, মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছেন। বর্তমানে কিশোরগ্যাং ও নারীর প্রতি ডিজিটাল ভায়োলেন্স চরমভাবে মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। এসবের সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান। সাধারণ মানুষ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা নিশ্চিতের পাশাপাশি অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দমন ও অপরাধী চক্রকে শনাক্ত করতে গাজীপুর জেলাকে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা আওতায় আনা হচ্ছে। এর ফলে গোটা জেলা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে যাবে, জনদুর্ভোগ লাঘব হবে। উপকৃত হবে প্রশাসনও।
ইতোমধ্যে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের সুফল পেয়েছেন স্থানীয়রা ও পুলিশ প্রশাসন। সিসি ক্যামেরার সুফলতার উদাহরণ হিসেবে মন্ত্রী বলেন, কিছুদিন আগে একটি চক্র কোচিং সেন্টার থেকে বাসায় ফেরার পথে এক ছাত্রকে কৌশলে অপহরণ করে। এ ঘটনায় অপহৃত ছাত্রের পিতা গাছা থানায় মামলা করেন। তথ্য প্রযুক্তি মাধ্যমে, সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে স্কুল ছাত্রের গতিবিধি অবলোকন করে স্কুল ছাত্রকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে অপহরণকারীদের মধ্যে থেকে একজনকে গ্রেফতার করেন এবং তার দেওয়া তথ্য মোতাবেক অপর আসামিদের নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। আর এইসবই সম্ভব হয়েছে তথ্য প্রযুক্তি ও সিসি ক্যামেরা স্হাপনের ফলে।
উপ-কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ তার বক্তব্যে বলেন, এলাকায় মাদক, সন্ত্রাস, কিশোর গ্যাং ও নারীর প্রতি ডিজিটাল ভায়োলেন্স বন্ধ করতেই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।নারী ও শিশু, কিশোরদের সহিংসতা দমাতে অভিভাবক, প্রশাসন ও এলাকাবাসী সকলকে একত্রে কাজ করার অাহ্বান জানান তিনি। তিনি আরও জানান, সিসি ক্যামেরা স্হাপনের ব্যপারটি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল স্যারই প্রথম আমাদের কাছে উপস্থাপন করেন। তারই নির্দেশে এবং অনুপ্রেরণায় আমরা গাজীপুরে ইতিমধ্যে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সিসি ক্যামেরা স্হাপন করি।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার, অপরাধ (দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে আরো উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এড. আজমত উল্লাহ খান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোঃ বরকত উল্লাহ খানসহ বক্তব্য রাখেন সহকারী পুলিশ কমিশনার গাছা জোনের এসি মোঃ আহসানুল হক, মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ, ৩৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল, গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সঞ্জিত কুমার মল্লিক বাবু, গাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইসমাইল হোসেন, গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম দ্বীপ, গাজীপুর মহানগর কৃসক লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক লিটন মোল্লা, যুবলীগ নেতা রাশেদুজ্জামান জুয়েল মন্ডল, মোঃ ইসমাইল হোসেন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম শফিক, আওয়ামীলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার মমতাজ উদ্দিন, আফজাল হোসেন খান, জহিরুল হক হারুন সিপাই, বাবুল হোসেন মন্ডল, আতাউর মন্ডল, তাতীলীগ নেতা জামাল খান প্রমূখ। অনুষ্ঠান শেষে গাছা থানার বিভিন্ন এলাকায় সর্বসাধারণের অপরাধ প্রতিরোধে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার শুভ উদ্বোধন করা হয়। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সার্বিক সহোযোগীতা করেন ৩৪নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ শামীম আল কায়সার খান।
চুরি, ছিনতাই, মারামারি, মাদক সেবন, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, ইভটিজিংসহ অন্য অপকর্ম করে অপরাধীরা যেন পালাতে না পারে, সন্দেহভাজনদের তল্লাশি, যানজট নিরসন, বখাটেদের উপদ্রব, মিছিল, সভা-সমাবেশে আইনশৃংঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ, ঘটনার রহস্য উদঘাটন সহজতর করার লক্ষ্যে জেলা পুলিশ সিসি ক্যামেরা স্থাপনের উদ্যোগ নেয়। পুলিশ প্রশাসনের সিসি ক্যামেরা স্থাপনের উদ্যোগকে সময় উপযোগী এবং এর ফলে জেলাবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন পুলিশসহ সংশ্লিষ্টরা।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen − 12 =