গাজীপুরে নাগরিক অধিকার আদায় ও জমি সংক্রান্ত বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন

0
56
728×90 Banner

জাহাঙ্গীর আকন্দ : গাজীপুরের পুবাইলে নাগরিক অধিকার আদায় ও জমি সংক্রান্ত বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী নাজমুননাহার ও তার পরিবার। গতকাল ১ আগষ্ট মঙ্গলবার রাত ৮ টা ৩০ মিনিটে পুবাইল থানাধীন সাতপোয়া গ্রামে ভুক্তভোগীর নিজ বাড়ীতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী নাজমুন নাহারের মেয়ে ও গাজীপুর মহানগর যুব মহিলা লীগের প্রচার সম্পাদক তাসলিমা জানান, আমরা দীর্ঘ ২০ বছর যাবত পুবাইল থানাধীন সাতপোয়া গ্রামে বসবাস করে আসছি। আমাদের বাড়ির পাশ দিয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের রাস্তার কাজ করতেছে। রাস্তা প্রসস্ত করার লক্ষ্যে দুই পাশের বাড়িঘর ভাঙা হচ্ছে। আমরাও রাস্তা চাই তবে রাস্তার কাজের জন্য বাড়িঘর ভাঙতে হলে আগে নোটিশ দিতে হয় অথচ কোন প্রকার মাইকিং ছাড়া, নোটিশ ছাড়া কি করে বাড়ি ঘর ভাঙতে পারে সেটা আমাদের বোধগম্য নয়। আমাদের বাউন্ডারি দেওয়াল, ও একটি টিনের সেট ভেঙে ফেলছে। আমরা বাংলাদেশের নাগরিক, সিটি কর্পোরেশনের ট্যাক্স দেই আমরা কি অধিকার রাখিনা একটা নোটিশ পাওয়ার। রাস্তার কাজের জন্য বাড়িঘর ভাঙতে হলে সিটি কর্পোরেশনের ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে ইঞ্জিনিয়ার থাকবে সিটি কর্পোরেশনের লোকজন থাকবে। আমি এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনের একজন ইঞ্জিনিয়ার এর সাথে কথা বলেছি সে জানিয়েছে যে আমাদের বাউন্ডারি ওয়াল কারা ভেঙেছে সে বিষয়ে তারা অবগত নন। তাহলে আমাদের বাড়িঘর কেন ভাঙ্গা হলো কারা ভাঙলো আমরা তার বিচার চাই। সাংবাদিক ভাইদের মাধ্যমে জানতে চাই আমাদের নাগরিক অধিকার কি? কেন নোটিশ পেলাম না। গত ৩০শে জুলাই সকাল ৯ঘটিকার সময় সাবেক কাউন্সিলর আব্দুস সালাম ও ইঞ্জিনিয়ার আমানউল্লাহ কোন প্রকার নোটিশ ছাড়া মাপ ছাড়া দুইশতাধীক লোক নিয়ে আমাদের বাড়িঘর ভেঙে আনুমানিক ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করেছে। এছাড়াও তারা বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হুমকি থমকি দিয়ে আসছে। আমরা বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে নাগরিক অধিকার সমন্ধে জানতে চাই। কেন আইনি সহযোগিতা পেলাম না তা সাংবাদিক ভাইদের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধিদের কাছে জানতে চাই। আমরা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার পরিবারের নিরাপত্তা চাই। এ বিষয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র আসাদুর রহমান কিরণসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা চাই।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here