গাজীপুর মহানগর আ. লীগের নেতৃত্বে কাঁরা আসছেন

0
53
728×90 Banner

অলিদুর রহমান অলি: রাজধানী ঢাকার উপকণ্ঠে গুরুত্বপূর্ণ গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন শনিবার (১৯ নভেম্বর)। সম্মেলনকে ঘিরে জেলার নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক প্রাণচাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।
২০১৩ সালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা লাভের পর শনিবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের প্রথম সম্মেলন।
সম্মেলনে কে হবেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা রাজধানীতে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। নগরীজুড়ে সাজসাজ রব। পদ প্রত্যাশী ও তাদের সমর্থকদের পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন ও শতশত তোরণে ছেয়ে গেছে পথঘাট-অলিগলি।
সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান। বিশেষ অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, অ্যাড. কামরুল ইসলাম এমপি, যুগ্ম সম্পাদক ডা. দীপু মণি।
সম্মেলনে কে হচ্ছেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এ আলোচনা এখন নগরজুড়ে। চলছে নানা বিশ্লেষণ। বিশেষ করে আলোচনায় আসছে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের পরিবারকে নিয়ে। শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছেলে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলকে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক করার পর থেকে এ পরিবার থেকে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল অথবা আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছোট ভাই মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মতিউর রহমান মতি তাদের মধ্যে যে কেউ একটি পদে নেতৃত্বে আসছেন এমনটিই ভাবছেন নেতাকর্মীরা। স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে সভাপতি পদে বর্তমান নগর সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান ও সিনিয়র সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলিম উদ্দিনের নামও বেশ আলোচনায় রয়েছে।
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন অন্তত ১০ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ মন্ডল, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল হাদী শামীম, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য ব্যারিস্টার সাজ্জাদুর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আফজাল হোসেন সরকার রিপন, যুগ্ম সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল, ভাওয়াল কলেজের সাবেক ভিপি আব্দুল হালিম সরকারের নাম শোনা যাচ্ছে।
আওয়ামী লীগ নেতারা জানান, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে কে অধিষ্ঠিত হচ্ছেন তা নির্ধারণ করবেন দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। রাজবাড়ী মাঠ ছাড়িয়ে কয়েক লক্ষাধিক লোকের সমাবেশ ঘটবে। সম্মেলনের সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।
গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন করার আগে ৯টি থানা কমিটির সম্মেলন সম্পন্ন হওয়ার কথা থাকলেও সময় স্বল্পতার কারণে টঙ্গী পূর্ব, টঙ্গী পশ্চিম ও সদর মেট্রো থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন করা সম্ভব হয়নি। আবার সম্মেলন করেও কোনাবাড়ি থানা ও কাউলতিয়া সাংগঠনিক থানা কমিটি ঘোষণা করা যায়নি। মহানগর সম্মেলনের পর এসব কমিটি করা হবে বলে জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here