চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী মানববন্ধন বিক্ষোভ

0
64
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : গাজীপুরে এক ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভূমি দখল, হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম খোকনের বিরুদ্ধে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হয়। রবিবার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে গাজীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভে ভুক্তভোগীসহ এলাকার কয়েকশ নারী-পুরুষ অংশগ্রহন করেন। মানববন্ধনে অংশনেয়া ভূক্তভোগীরা জানান, অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম খোকনের পরিবার বিএনপি সর্থিত হলেও ২০১৬ সালে নৌকা প্রতিক নিয়ে মাওনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। এরপর থেকেই দখলের ঠিকাদারি শুরু করেন। নাম খোকন হলেও তাকে এলাকাবাসী বাউন্ডারী খোকন বলে ডাকে। ওই এলাকায় এএএ টেক্সটাইল মিলস লি: নামের একটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের নামে প্রায় অর্ধশত বিঘা সম্পত্তি ক্রয় করেদেন তিনি। যেখানে বাউন্ডারি দেয়াল তৈরী করে বালু ভড়াট শুরু করেছে। বালু ভড়াট, জমি কেনা-বেচার এবং দখল বুঝিয়ে দেয়ার অঘোষিত ঠিকাদার খোকন চেয়ারম্যান। সেই ঠিকাদারী পালন করতে গিয়ে কেউ বাধা হয়ে দাঁড়ালে তাকে ভয়-ভীতি হুমকী ধামকি এবং মামলা মোকাদ্দমা কোন কিছুই বাদ রাখেন না তিনি। মামলা দিয়ে বাড়ি ছাড়া করে দখল নেয় জমি। জীবনভর জমিতে চাষাবাদ করা জমিতে শিল্পকারখানার বাউন্ডারী দেয়াল তৈরী করে শুধু সম্পত্তি কেরে নেয়নি নিয়েছে ভেতরে ঢোকার অধিকারও। এবিষয়ে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং জেলা প্রশাসক বরাবর জমি উদ্ধারে লিখিত আবেদন করলেও ক্ষমতাবান চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রশাসন ব্যবস্থা নিতে রহস্যজনক ভাবে নিরব। জমি উদ্ধার করতে গিয়ে নিহত নাওভাঙ্গারচর গ্রামের আলাল উদ্দিনের ছেলে মোজাম্মেল (২২) বলেন, গত ৮ বছর আগে দিনে দুপুরে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন মোজাম্মেল (৩২)। নিহত আলাল উদ্দিনের স্ত্রী, দুই সন্তান নিয়ে এখন অথৈ সাগড়ে ভেসে জীবন সংগ্রাম করছেন। হত্যার আট বছর পেরিয়ে গেলেও বাবা হত্যার বিচার পান নি। মামলায় নিহতের পরিবারের কাউকে বাদি নাকরে রহস্যজনক ভাবে বাদী হয় তৎকালী শ্রীপুর থানার এসাআই জাকির হোসেন। তবে এই হত্যাকান্ডের মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামীর সংখ্যা প্রায় ১শ। ১০জনকে তৎক্ষনাত আটক দেখানো হলেও মূল আসামী খোকন চেয়ারম্যানকে কৌশলে মামলা থেকে বাদ দেয়া হয়। বনভূমি দখল, অস্ত্র, চাঁদাবাজি মামলাসহ একাধিক মামলা থাকলেও তিনি রয়েছেন ধরাছোয়ার বাহিরে। মানববন্ধ ও বিক্ষোভে মাওনা উইনিয়নের সিংগারদিঘী কারনবাজার এলাকার আকবর আলী শেখের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ভুক্তভোগী ইদ্রিস আলী, হাবিজ উদ্দিন, মাসুদ রানা, মোজাম্মেল, কবির হোসেন, ফারুক, মনোয়ারা, অজুফা, মিনা বেগম প্রমুখ। এবিষয়ে অভিযুক্ত মাওনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম খোকন বলেন, আগামী নির্বাচনে যাতে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন না দেয়া হয় সে জন্য একটি মহল ষড়যন্ত্র করছে। তিনি কোন ভূমি বা হত্যান্ডের সাথে জড়িত নন।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eighteen + one =