তুরাগে ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত

0
8
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: ‘‘নিরাপদ নারী, নিরাপদ দেশ, সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ’’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ডি এম পির তুরাগ থানার উদ্যোগে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে । শনিবার ( ১৭ অক্টোবর ) সকাল ১১টায় এলাকার উলে­খযোগ্য সংখ্যক নারী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, স্থানীয় বাসিন্দাসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের অংশগ্রহনে, তুরাগ থানা প্রাঙ্গন থেকে ব্যানার-ফেস্টুন হাতে নিয়ে বিশাল একটি র‌্যালি বের হয় । পরে তুরাগের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে র্যা লিটি পুনরায় থানা প্রাঙ্গনে এসে এক আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ । উক্ত র‌্যালি ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উত্তরা জোনের সহকারী সিনিয়র পুলিশ কমিশনার শচিন মলি­ক, সভাপতিত্ব করেন তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ হাজী মোহাম্মদ সফিউল­াহ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তুরাগ থানা বিট পুলিশিং এর সভাপতি বীর- মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আব্দুল বারিক, তুরাগ থানা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা জরিনা বেগম, সাবেক হরিরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মোঃ সোহেল শেখ, ঢাকা উত্তর সিটির ৫৪নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন নাসির, প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন টঙ্গী সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় এন্ড কলেজের মেধাবী শিক্ষার্থী মোল­া তানিয়া ইসলাম তমা, র‌্যালি ও আলোচনা সভার সার্বিক পরিচালনা করেন তুরাগ থানার ইন্সপেক্টর ( অপারেশন ) শেখ মফিজুল ইসলাম । এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উত্তরা জোনের সহকারী সিনিয়র পুলিশ কমিশনার জনাব শচিন মলি­ক বলেন, ধর্ষকদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। ধর্ষণ প্রতিরোধে পুলিশ তৎপর আছে । তবে তা ঠেকাতে সামাজিক সচেতনতা দরকার । ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে সারা দেশে সমাবেশ করছে বাংলাদেশ পুলিশ । আজ শনিবার দেশব্যাপী ৬ হাজার ৯১২টি বিট পুলিশিং এলাকায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনবিরোধী এ সমাবেশ এক যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে । তিনি আরও বলেন, ‘নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বন্ধ করি, নারীবান্ধব দেশ গড়ি’, ‘বন্ধ হোক নারী নির্যাতন, নিশ্চিত হোক দেশের উন্নয়ন’ সমাবেশে অংশ গ্রহণ কারীদের ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে এগিয়ে আসার আহŸান জানান তিনি । জনাব শচিন মলি­ক বলেন, ‘নির্যাতিত মা-বোনদের পাশে আমরা আছি । ইতিমধ্যে আইন সংশোধন করে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করা হয়েছে । একটি মামলায় এরই মধ্যে ৫ জনের ফাঁসিও হয়েছে । এতে আমাদের মধ্যে আশার সঞ্চার করেছে ।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here