পূবাইলে স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর কাণ্ড

0
45
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : গাজীপুর মহানগরের পূবাইলে স্বামীর অত্যাচার নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন গৃহবধূ লায়লা বেগম (২৩)।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর ৪১নং ওয়ার্ডের পূবাইল বেপারি পাড়ার নিজের মায়ের বাড়িতে আত্মহননের পথ বেছে নেন তিনি। লায়লার আগের স্বামীর ঔরসজাত একটি ৫ বছরের ছেলে সন্তান রয়েছে।
বুধবার সকালে ঢাকা উত্তরার পশ্চিম থানার পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
জানা যায়, তার স্বামী উজ্জ্বল আহমেদ ঈশান (৩০) মঙ্গলবার দিনভর কিছুক্ষণ পর পর তাকে অমানুষিক শারীরিক নির্যাতন করে। ফলে রাগে ক্ষোভে ইঁদুর মারার ওষুধ পানিতে গুলিয়ে পান করে ছটফট করতে থাকেন। খবর পেয়ে প্রতিবেশীর বাড়িতে থাকা লায়লার মা জোসনা বেগম গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। পরে ঢাকা নেওয়ার পথে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উত্তরা আরএমসি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত ১০টার দিকে আরএমসি হাসপাতালে লায়লা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।
জানা যায়, লায়লার স্বামী উজ্জ্বল আহমেদ ঈষান ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার ঘাসিগাঁও গ্রামের বারেক মিয়ার ছেলে। তিনি ইতোমধ্যে বিভিন্ন উপায়ে ফেসবুকের মাধ্যমে খুলনা, বরিশাল ঢাকা ও গাজীপুর মহানগরের লায়লাসহ প্রতারণা করে অন্তত ৫-৬টি বিয়ে করেন। লায়লা ছিল তার শেষ শিকার।
পূবাইল থানার ওসি কামরুজ্জামান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here