“বঙ্গবন্ধুর শিক্ষাদর্শন, শিক্ষাব্যবস্থা করতে হবে জাতীয়করণ শ্লোগানে মুখরিত প্রেসক্লাব অঙ্গন”

0
22
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : ৫ অক্টোবর বিশ্ব শিক্ষক দিবস উদযাপন উপলক্ষে শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ ঘোষণার দাবিতে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি(বাশিস) এবং এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লিয়াজোঁ ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত শিক্ষক সমাবেশে সারাদেশ থেকে আগত বেসরকারি শিক্ষকদের পদভারে মুখরিত ঢাকার রাজপথ।”বঙ্গবন্ধুর শিক্ষাদর্শন শিক্ষাব্যবস্থা করতে হবে জাতীয়করণ” শ্লোগানে মুখরিত প্রেসক্লাব অঙ্গণ।সারাদেশ দেখে আগত শিক্ষকদের কণ্ঠে একই আওয়াজ শিক্ষাক্ষেত্রে বিরাজমান বৈষম্য নিরসনকল্পে এবং শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে জাতীয়করণের কোন বিকল্প নেই। আজ ৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বাশিস) সভাপতি এবং এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরামের মুখপাত্র নজরুল ইসলাম রনির সভাপতিত্বে এ শিক্ষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।নজরুল ইসলাম রনি বলেন, বাংলাদেশের সকল বেসরকারি শিক্ষকদের প্রাণের দাবি জাতীয়করণ। শিক্ষা ক্ষেত্রে বিরাজমান পাহাড়সম বৈষম্য নিরসনে শিক্ষা জাতীয়করণ এখন সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে। বেসরকারি শিক্ষকদের প্রত্যাশা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আজীবন লালিত স্বপ্ন শোষণ ও বৈষম্যহীন সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য উত্তরসূরি শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার অচিরেইই শিক্ষা জাতীয়করণ ঘোষণা দেবে।
বাশিসের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ভূঞার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শিক্ষক সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাশিসের প্রধাান উপদেষ্টা সাইদুল হোসেন সাহেদ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীযকরণ ফোরামের সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ মাইনুযদ্দিন, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুর রহমান। শিক্ষাক্ষেত্রে বিরাজমান বৈষম্যের চিত্র তুলে ধরে বক্তারা বলেন, বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপক বৈষম্য বিরাজমান। সরকারি চাকরিজীবীরা ২০১৫ সাল থেকে ৫% ইনক্রিমেন্ট পেলেও বেসরকারি শিক্ষকরা পেয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশির্বাদে ২০১৮ সাল থেকে। তাও আবার কোনরকম বকেয়া ছাড়াই। একই অবস্থা বৈশাখী ভাতা প্রাপ্তির ক্ষেত্রেও। মরার উপর খাড়ার ঘা! এ আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই অতিরিক্ত ৪% কেটে নেয়া হচ্ছে বাড়তি কোন সুবিধা প্রদান ব্যাতিরেকেই। অবিশ্বাস হলেও সত্য যে, বেসরকারি শিক্ষকরা মাত্র ২৫% উৎসব ভাতা পাচ্ছেন। তাদের বাড়ি ভাড়া মাত্র ১০০০ টাকা, চিকিৎসা ভাতা ৫০০ টাকা, শ্রান্তি বিনোদন ভাতা, সন্তানের শিক্ষা ভাতা একেবারেই নেই। তাদের চাকরিতে কোন বদলী নেই। যেখানে শুরু সেখানেই শেষ! জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর আজীবন লালিত স্বপ্ন ছিল, শোষণ ও বৈষম্যহীন সমাজ ও রাষ্ট্র গড়ে তোলা। এদেশের ভূখানাঙ্গা ও দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানো। তাদের অধিকার আদায়ের জন্যই তিনি লড়াই করেছেন, জীবনের একটা উল্লেখযোগ্য সময় জেলে অন্তরীণ থেকেছেন। স্বপ্ন দেখেছেন একটি বৈষম্যহীন ও সুখী সমৃদ্ধশালী সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার। শিক্ষা জাতীয়করণ হলে বঙ্গবন্ধুর বৈষম্যহীন সমাজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে।
জাতীয়করণের দাবিতে এবং বৈষম্য নিরসন, ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক শিক্ষক নির্যাতন ও চাকরিচ্যুতির প্রতিবাদ জানিয়ে আরও বক্তব্য রাখেন:- বাশিসের মহাসচিব মোহাম্মদ আতিকুর রহমান তালুকদার, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ মহসীন আলী, সহ-সভাপতি তাহমিনা ফেরদৌসী শুভ্রা, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ লুৎফর রহমান, অতিরিক্ত মহাসচিব ওমর ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান, তানিয়া আক্তার, অর্থ সম্পাদক কামাল হোসেন কার্যকরী সদস্য আব্দুর রহিম, দিলরুবা খান, রাজশাহী জেলার সভাপতি মোঃ তারিকুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা বাশিসের সভাপতি মোঃ নুরুল ইসলাম, বগুড়া জেলা বাশিসের সভাপতি ইকরামুল হক, কুমিল্লা জেলা বাশিসের সভাপতি প্রশান্ত কুমার সরকারসহ জেলা ও উপজেলা থেকে আগত সঃগ্রামী নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here