বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে ১০ জন সদস্যের লিখিত অভিযোগ

0
36
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : বিজয়নগর উপজেলার ১ নং বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী সাইদ্যুিল ইসলাম এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ এনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।
গত ২৫ আগস্ট পরিষদের ৮ জন সাধারণ ও ৩ জন সংরক্ষিত আসনের সদস্য এই লিখিত অভিযোগ করেন।পাশাপাশি কোন চাপের কাছে নতিস্বীকার করে তাঁরা একে-অপরকে ছেড়ে না যাওয়ার অঙ্গিকার করে কোর্টে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে সাথে মিলেমিশে মোকাবেলা করার অঙ্গীকার নামাও করেন।
অভিযোগে সাক্ষাৎ করেন, উপজেলার ১ নং বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের ১,২,৩,৪,৬,৭,৯ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য ও ১,২,৩ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ড, ৪,৫,৬ নং সংরক্ষিত সদস্য ও ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য সাক্ষর করেন।
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, পরিষদে তাঁরা নির্বাচিত হয়ে আসার পর থেকে চেয়ারম্যান এর একনায়কতন্ত্র কায়েমের কারনে তাঁরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে জনগণের সেবা প্রদানের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাদের সাথে পরামর্শ না করেই মাসিক মিটিং চেয়ারম্যান নিজের মনগড়া বিভিন্ন সিদ্ধান্ত লিপিবদ্ধ করার জন্য তাঁর বাড়িতে ডেকে নিয়ে পরিষদের সচিবকে চাপপ্রয়োগ করে লিপিবদ্ধ করতে বাধ্য করেন। চেয়ারম্যান এর কাছে সদস্যরা কোন কিছু জানতে চাইলে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে তাড়িয়ে দেন। এবং চেয়ারম্যান এর পোষ্য বাহিনী দিয়ে বিভিন্ন সময় অপমানিত করার অভিযোগ করেন।
অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়, রাস্তাঘাট উন্নয়ন এর জন্য স্থানীয় এমপি পক্ষ থেকে ১১ টন গম বরাদ্দ প্রদান করলে সেটা পরিষদের কারো পরামর্শ বা সহযোগিতা না নিয়ে নিজের পোষ্য লোকবল দিয়ে প্রকল্প দেখিয়ে মহিলা মেম্বার কে সাক্ষর দিতে চাপপ্রয়োগ করেন।
এছাড়াও জন্ম নিবন্ধন ফি সরকার নির্ধারিত ৫০ টাকার ফি’র পরিবর্তে ১৫০ টাকা নেওয়া, জাতীয় পরিচয়পত্র ফি ২০ টাকা থেকে ৫০ টাকা উন্নতিকরণ, মৃত্যু সনদ ৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা উন্নতিকরণ, ওয়ারিশ সনদ ১০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা নিজের মনগড়া একক সিদ্ধান্ত উন্নতিকরণ করার মাধ্যমে ইউনিয়নবাসীকে সরকার নির্ধারিত সেবা পেতে ভুগান্তি করে যাচ্ছে।
এব্যাপারে ১ নং ওয়ার্ড এর সদস্য মোঃ সোহাগ ইসলাম জানান, চেয়ারম্যান নিজের লোকজন নিয়ে এককভাবে পরিষদ পরিচালনা করছে। আমাদের কোন মতামত নেওয়া, কাজ করার সুযোগ বা কোন গুরুত্ব দিচ্ছে না। এমন কি পরিষদে গেলে আমাদের বসার একটা চেয়ার পর্যন্ত নাই বলে ওনি আমাদের তুচ্ছতাচ্ছিল্য করেন।
উপজেলার ১ নং বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী সাইদ্যুিল ইসলাম জানান, তাঁদের কোন অভিযোগ থাকলে আমার সাথে আলোচনায় বসতে পারতো। তারা তা না করে কিছু মানুষের কুপরামর্শে ভিত্তিহীন অভিযোগ করছে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here