রাজধানীর কলমিলতা মার্কেটের ক্ষতিপূরণ প্রদানে অনিয়সের প্রতিবাদে মানববন্ধন

0
16
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : উই ওয়ান্ট জাস্টিস ফর ফ্রিডম ফাইটার্স ফ্যামিলি ব্যানারে ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্প, বিজয় স্মরণীস্থ কলমিলতা বাজারের ক্ষতিপূরণ প্রদানে অনিয়ম, দুর্নীতি এবং লুটপাটের বিরুদ্ধে মেয়র আতিকুল ইসলাম, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামানের পদত্যাগ ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবার নুর তাজ আরা ঐশীর ৬ দফা দাবি পেশ ও ‘আব্দুর রহিম সমর্থক ৩০ শে ডিসেম্বর ২০২২ শুক্রবার সকাল ১০.০০ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সমানে নুরতাজ আরা ঐশীর নেতৃত্বে মানববন্ধন ও পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। তার লিখিত বক্তব্যে জানান আমার বাবা আলহাজ্ব মোহাম্মদ আব্দুর রহিম,আমার দাদা শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদির,আমরা ঢাকার একটি বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা পরিবার। আজ দুটি বিষয় নিয়ে আপনাদের সামনে এসেছি। একটি ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্প অধিকার ফিরে পাওয়া এবং ঢাকার বিজয় সরণীস্থ কলমিলতা বাজার ক্ষতিপুরণ বুঝে পাওয়া।
আপনারা অবগত আছেন যে আমরা ইতিমধ্যেই উপরে উল্লেখিত বিষয়ে কয়েক বছর যাবত সংবাদ সম্মেলন, বিক্ষোভ কর্মসুচী ও মানববন্ধন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারি দপ্তরে আবেদন-নিবেদন ও সংগ্রাম করে আসছি।
কলমিলতা বাজারের ক্ষতিপূরণ বাবদ ৪০০০ কোটি টাকা ডিএনসিসি মেয়রের কাছে আমাদের পাওনা। ডিসি ঢাকা বারবার পত্র দিয়ে পরবর্তী প্রদক্ষেপ গ্রহণে মেয়রকে অবগত করে যাচ্ছেন। অন্যদিকে সর্বোচ্চ আদালতের আদেশ রয়েছে, আমাদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য । জনাব মেয়র আতিকুল ইসলাম সর্বোচ্চ আদালতের আদেশ ও আমাদের অধিকার সম্পর্কে জেনেবুঝে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে ক্ষমতার অপব্যবহার করে গায়েরজোরে দীর্ঘদিন যাবত আমাদের প্রাপ্য ক্ষতিপূরণ প্রদান থেকে বিরত রয়েছেন৷ এর পিছনে দূরভিসন্ধি ও দুর্নীতির মানসিকতাই কাজ করছে বলে আমরা মনেকরি। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মোঃ আব্দুর রহিম,নুরজাহান বেগম সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
নুরতাজ আরা ঐশি তার সমস্যা সমাধানে ৬দফা দাবী তুলে ধরেন। দাবীগুলো হলো-
১) মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্প বাস্তবায়নের বাঁধাসমূহ দূর করা এবং ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম কর্তৃক কলমিলতা বাজারের ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের যথাযথ নির্দেশ ও সেই নির্দেশ প্রতিপালনে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে বাধ্য করা।
২) ভূমি মন্ত্রণালয় কর্তৃক এনএসপিডিএল এর চুক্তি বাতিল আদেশ অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার করার ব্যবস্থা করা।
৩) ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্প ব্যর্থ করার ষড়যন্ত্রের দায়ে ভূমি মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মহামান্য হাইকোর্টের একজন বিচারপতির নেতৃত্বে তিন সদস্যের বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করা ।
৪) ভূমি মন্ত্রণালয় ও এনএসপিডিএল এর মধ্যে যাবতীয় বিরোধ প্রকল্প বাস্তবায়ন চুক্তি পত্রের ষষ্ঠ অধ্যয় ও ৬.১৫ ও ৬.১৭ ধারা ও মাননীয় হাইকোর্টের রিট পিটিশন ৭৭৯/২০১০ নম্বরে অবজারভেশন অনুযায়ী সালিশি বোর্ডের মাধ্যমে সমাধান করা।
৫) ভাষানটেক পুনর্বাসন প্রকল্প সংক্রান্তে দুর্নীতি দমন কমিশন তথা দুদকের বন্ধ হওয়া তদন্ত কার্যক্রম পুনরায় চালু করা। সেইসঙ্গে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ও জনাব আতিকের বিরুদ্ধে গত ১৯/৫/২০২১ইং তারিখে দায়েরকৃত অভিযোগটি তদন্ত পূর্বক জরুরী ভিত্তিতে প্রতিবেদন জাতির সামনে তুলে ধরা।
৬) শহীদ পরিবার হিসেবে আলহাজ্ব আব্দুর রহিম সাহেবের পরিবারবর্গের জানমাল ও সম্পদের সুরক্ষা প্রদান করা। একইসাথে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সরকারি অন্যান্য সুযোগ সুবিধা মুক্তিযোদ্ধা পরিবার হিসেবে আমার পরিবারকে প্রদান করা এবং মানবাধিকার সুরক্ষা নিশ্চিত করা।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here