শাহজালালে দুই কেজি সোনাসহ আটক-২

0
10
728×90 Banner

মনির হোসেন জীবন: হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রায় দুই কেজি সোনাসহ দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। এদের মধ্যে একজন বিমানবন্দরের কর্মী এবং অপর জন যাত্রী বলে জানা গেছে।
আটককৃতরা হলেন, কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানার আব্দুল হারুনের পুত্র দুবাই প্রবাসী জুয়েল (৩০) ও গাজীপুর জেলার পূবাইল থানার নুরুল ইসলাম সরকারের পুত্র হেল্পলাইন স্টাফঃ মোঃ আমজাদ হোসেন (৩৭)।
জব্দকৃত সোনার মধ্যে ১৬ পিস গোল্ডবার এবং গয়নাসহ মোট ১ হাজার ৯৫৫ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়।
যার আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা।
রোববার রাতে বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল এলাকা থেকে সোনাসহ তাদের আটক করা হয়। পরে জিঙ্গাসাবাদ শেষে রাতে তাদেরকে এয়ারপোর্ট থানায় পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়েছে।
এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ জিয়াউল হক জিয়া সোনা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, রোববার সন্ধ্যা রাত ৭টার দিকে দুবাই থেকে আসা এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে অবতরন করে। আর ওই বিমানের যাত্রী ছিল জুয়েল (৩০)। তিনি আগে থেকে ফোনে যোগাযোগ করে রাখা হেল্পলাইন স্টাফ আমজাদের (৩৭) সঙ্গে দেখা করেন। এ সময় ৪ নম্বর এরাবেল লাগেজ বেল্টের কাছে যাত্রী জুয়েল হেল্পলাইন স্টাফ আমজাদের কাছে একটি কালো রঙের পাওয়ার ব্যাংক এবং টেপে মোড়ানো ৪ পিস গোল্ডবার দেন। এ সময় যাত্রীর কাছে আরও দু’টি গোল্ড বার এবং ৯৯ গ্রাম সোনার গয়না ছিল। পরে
এপিবিএনের গোয়েন্দা দল সন্দেহের ভিত্তিতে তাদের দুই জনকে আটক করে। এ সময় জুয়েলের কাছে থাকা পাওয়ার ব্যাংকের ভেতরে লুকিয়ে রাখা ১০টি গোল্ডবার পাওয়া যায়। এ ছাড়া তল্লাশি করে আরও চারটি গোল্ডবার পাওয়া যায়। অপরদিকে যাত্রীকে তল্লাশি করে আরও দুটি গোল্ডবার এবং গয়নাসহ মোট ১ হাজার ৯৫৫ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়।
বিমানবন্দর আমর্ড পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, যাত্রী জুয়েল এবং হেল্পলাইন স্টাফ আমজাদকে জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছেন। এছাড়া জুয়েল ১৪০ বার বিদেশে যাতায়াত করেছে। গত সপ্তাহে সোনা চোরাচালানে সহযোগিতা করায় আমজাদ এক যাত্রীর নিকট থেকে ২০ হাজার টাকা পেয়েছিলেন। অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, তারা একই পদ্ধতিতে সোনা চোরাচালান করতেন। তাদের বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here