ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের লেখক সম্মাননা অনুষ্ঠানে খায়রুজ্জামান লিটন

0
55
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমÐলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশিত পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আরো বহুদূর এগিয়ে যাবে।
মঙ্গলবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলরুমে ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল আয়োজিত লেখক সম্মাননা-২০২২ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে কবিতা, ইতিহাস/গবেষণা, গল্প-উপন্যাস, অনুবাদ, শিশু সাহিত্য ও ভ্রমন/ বিজ্ঞাপন ক্যাটাগরিতে শতাধিক লেখককে সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত লেখকদের হাতে ক্রেস্ট, উত্তরীয়, সনদপত্র ও সম্মানী তুলে দেন রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন আয়োজকরা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিকবান্ধব প্রধানমন্ত্রী। আমরা দেখি তিনি বিদেশে কোন সফরে গেলে সেখান থেকে ফিরে এসে সংবাদ সম্মেলন করেন এবং সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।
মেয়র আরো বলেন, সাংবাদিকরা হচ্ছেন জাতির বিবেক। নানা ঝুঁকির মধ্যে থেকেও আপোসহীনভাবে কাজ করে যান তারা। এটি সত্যিই প্রশংসনীয়। আর সংবাদপত্রকে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলে মনে করা হয়। সংবাদপত্রের কারণে একেবারে তৃণমূল পর্যায়ের খবর আমরা জানতে পারি। কোথায় কী ঘটছে, কোথায় কী হচ্ছে, কী হওয়া উচিত-সব কিছুই আমরা জানতে পারি।

তিনি আরো বলেন, সাংবাদিকরা জনকল্যাণমূলক দাবিগুলো সবার সামনে তুলে ধরবে- এটি জাতি আশা করে। ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সদস্যরা নিজেদের ঐক্য আরো সুদৃঢ় করে আরো সামনের দিকে এগিয়ে যাবে বলে আশা করি।
ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল এর সভাপতি মামুন ফরাজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর। বক্তব্য দেন ভোরের কাগজ পত্রিকার সম্পাদক শ্যামল দত্ত, ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি কায়কোবাদ মিলন, সাবেক সভাপতি কেএম শহিদুল হক, সাবেক সভাপতি শাহ মুহাম্মদ মোতাসিম বিল্লাহ, জুরিবোর্ডের সদস্য ড. হাসান অরিন্দম, লেখক সম্মাননা উপ-কমিটির আহŸায়ক কবীর আলমগীর প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান হৃদয়।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমীন, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াছ খান সহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও ঢাকা সাব এডিটরস কাউন্সিলের সদস্য ও লেখকরা উপস্থিত ছিলেন। ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল (ডিএসইসি) লেখক সম্মাননা জুরি বোর্ডের দায়িত্বে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. গিয়াস শামীম, কবি প্রাবন্ধিক-গবেষক মজিদ মাহমুদ, কথাসাহিত্যিক ড. হাসান অরিন্দম, কবি ও গবেষক আমিনুল ইসলাম, কথাসাহিত্যিক মনি হায়দার। নির্বাহী কমিটিতে (জুরি) ছিলেন মামুন ফরাজি, আনজুমান আরা শিল্পী, আবুল হাসান হৃদয়, লাবিন রহমান, মনির আহমাদ জারিফ, মামুনুর রশিদ মামুন, জাফরুল আলম, হালিমা খাতুন, আরিফ আহমেদ, মো. মোস্তাফিজুর রহমান, হাসান আহমেদ। লেখক সম্মাননা উপ-কমিটিতে ছিলেন কবীর আলমগীর, শিবলী নোমানী, প্রতীক মাহমুদ, নাজিম উদ দৌলা সাদী, মো. নঈম মাশরেকী।
সংবর্ধিত লেখকদের মধ্যে মো. আসিফ, সানজিদা সুলতানা ও জাহাঙ্গীর সুর প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here