বিশ্ব ইজতেমার দুই পক্ষকে এক হওয়ার আহ্বান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

0
63
728×90 Banner

জাহাঙ্গীর আকন্দ : বিশ্ব ইজতেমার দুই পক্ষকে এক হওয়ার আহ্বান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘বিশ্ব ইজতেমা বাংলাদেশের একটি ইতিহাস। দুই পক্ষের বিরোধ দুঃখজনক। আপনাদের মনোভাব পরিবর্তন হয়নি। দুই গ্রুপ যদি একসাথে খেতে পারতেন, আমরা খুশি হতাম।
দুই গ্রুপকে যদি আপনারা মিলিয়ে দিতে পারতেন, আমরা খুশি হব। এই মেলানোর দায়িত্বটা ধর্মমন্ত্রীকে দিলাম। তিনি ভবিষ্যৎ তাদের মিলিয়ে দেবেন।’ আজ সোমবার বিকেলে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা সংলগ্ন বাটা গেট রোডে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার ফলোআপ সভায় সভাপতির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, ‘আমি প্রথম গ্রুপকে বলব, সুন্দরভাবে মাঠ বুঝিয়ে দেবেন। দুপুর পর্যন্ত না গড়িয়ে সকাল থেকে মাঠ বুঝিয়ে দেবেন। এই ইজতেমা বাংলাদেশে ইতিহাস সৃষ্টি হয়েছে। আমরা আয়োজন সুসম্পন্ন করতে পেরেছি। আমি অনুরোধ করব, আপনারা মিলেমিশে চলবেন এবং মিলেমিশে চলার শিক্ষা দেবেন।’
অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক মোজাম্মেল হক বলেন, ‘ইজতেমার মুসল্লিদের দুর্ভোগ কমাতে ভোগড়া বাইপাস ৩০০ ফুটের রাস্তার কাজ বন্ধ রেখে যান চলাচল চালু করলে ভালো হয়।’
ধর্মমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেন, ‘অতীতের ভুলগুলো খেয়ালে আনতে হবে। আজ ইজতেমায় দুই গ্রুপ হওয়ায় অসংগতি হচ্ছে। দুই গ্রুপের বিভেদ দুঃখজনক।’
জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘অতীতের মতো এবারও ইজতেমা সুন্দর হবে। একটা সময় টয়লেট সুবিধা চাননি; কিন্তু এখন এটার গুরুত্ব বুঝতে পারছেন। আমরা পানির সাপ্লাই নিশ্চিত করতে পেরেছি।’
ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘বিশ্ব ইজতেমা সাফল্য করতে বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দিয়াবাড়ী এলাকায় একটা মঞ্চ করবে বলেছে, কিন্তু অনুমতি ছাড়াই তারা মঞ্চ করে ফেলেছেন। এটার অনুমতি দেওয়া হয়নি। আমরা চাই, আপনারা ভবিষ্যতে যৌথভাবে কাজ করবেন।’
প্রথম পর্বের প্রতিনিধি খন্দকার মেজবাহ উদ্দিন আহমদ বলেন, ‘এই বাংলাদেশের ইজতেমা মানুষের রক্তের সাথে মনের সাথে মিশে গেছে।’ প্রথম পর্বের হস্তান্তরের সময় কোনো সমস্যা হবে না বলে তিনি জানান।
দ্বিতীয় পর্বের প্রতিনিধি ড. মোহাম্মদ আব্দুস সালাম বলেন, ‘সোমবার বা মঙ্গলবার বাদ মাগরিব আমাদের মাঠ দিয়ে দিতে অনুরোধ করছি। গতকাল প্রথম পর্বের লোকজন উত্তরায় আমাদের একজনকে মারধর করা হয়েছে। আহত এখম পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।’
গাজীপুর পুলিশের উপকমিশনার আবুল বাশার মো. আতিকুল রহমান বলেন, ‘বিশ্ব ইজতেমার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির মানচিত্র প্রদর্শন করা হবে। বিশেষ করে এবার ২০০টি স্মার্ট সিসি ক্যামেরা থাকবে।’

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here