অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত

0
148
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের কার্যকরী পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৭ সেপ্টেম্বর (সোমবার) সন্ধ্যায় সিডনির লাকেম্বায় একটি ফাংশন সেন্টারে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মতিনের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ আসলাম মোল্লার সঞ্চালনায় আগামী ২৩ ডিসেম্বর (শনিবার) বিজয় দিবস উদযাপনের প্রস্তুতির বিষয়ে এই সভা হয়।
এই প্রস্তুতি সভায় স্পন্সর, বাজেট, বিশেষ স্মরণীকা প্রকাশ, অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও কমিউনিটির শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দকে আমন্ত্রণসহ বিজয় দিবস উদযাপনকে সাফল্যমণ্ডিত করতে বিভিন্ন কর্মসূচি গৃহীত হয়।
এছাড়াও নতুন সদস্যদের আবেদনপত্র গ্রহণসহ আগামী ৩০ ডিসেম্বর বার্ষিক সাধারণ সভার তারিখ সর্বসম্মতি ক্রমে নির্ধারিত হয়।
এর আগে গত ১ সেপ্টেম্বরের এক সভায় লেখক ও সাংবাদিকদের বৃহত্তম সংগঠন অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ আসলাম মোল্লাকে আহ্বায়ক করে সিডনির হার্সভিলের সিভিক থিয়েটার হলে বৃহৎ আকারে বাংলাদেশের ‘মহান বিজয় দিবস’ উদযাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। নৈশ ভোজের আমন্ত্রণ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের কার্যকরী পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৭ সেপ্টেম্বর (সোমবার) সন্ধ্যায় সিডনির লাকেম্বায় একটি ফাংশন সেন্টারে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মতিনের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ আসলাম মোল্লার সঞ্চালনায় আগামী ২৩ ডিসেম্বর (শনিবার) বিজয় দিবস উদযাপনের প্রস্তুতির বিষয়ে এই সভা হয়।
এই প্রস্তুতি সভায় স্পন্সর, বাজেট, বিশেষ স্মরণীকা প্রকাশ, অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও কমিউনিটির শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দকে আমন্ত্রণসহ বিজয় দিবস উদযাপনকে সাফল্যমণ্ডিত করতে বিভিন্ন কর্মসূচি গৃহীত হয়।
এছাড়াও নতুন সদস্যদের আবেদনপত্র গ্রহণসহ আগামী ৩০ ডিসেম্বর বার্ষিক সাধারণ সভার তারিখ সর্বসম্মতি ক্রমে নির্ধারিত হয়।
এর আগে গত ১ সেপ্টেম্বরের এক সভায় লেখক ও সাংবাদিকদের বৃহত্তম সংগঠন অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ সভাপতি মোহাম্মদ আসলাম মোল্লাকে আহ্বায়ক করে সিডনির হার্সভিলের সিভিক থিয়েটার হলে বৃহৎ আকারে বাংলাদেশের ‘মহান বিজয় দিবস’ উদযাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। নৈশ ভোজের আমন্ত্রণ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here