আজ বাঙালির গৌরবের অমর একুশে

0
44
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক :  ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি/ আমি কি ভুলিতে পারি…। ’ আজ বুধবার, অমর একুশে ফেব্রুয়ারি।
বাঙালি জাতির জীবনে চিরভাস্বর একটি দিন। যে দিনে মায়ের ভাষা বাংলার মর্যাদা রক্ষায় সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারের মতো ভাষাসৈনিকেরা রক্ত ঢেলেছিলেন রাজপথে। এই দামাল ছাত্র-জনতার আন্দোলন পরে গড়ে দিয়েছিল স্বাধীনতাসংগ্রামের সিঁড়ি। যে সংগ্রামের চূড়ান্ত পরিণতিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙালি মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র অর্জন করে।
আজ ‘শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’। জাতিসংঘের উদ্যোগে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে ভাষা শহীদদের স্মরণে দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হবে। রাজধানী ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং বিভিন্ন স্থানে আলোচনা সভাসহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতি একুশের মহান শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে।
তৎকালীন পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী বাঙালির ওপর উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে চাপিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা করেছিল। তবে সেই অপচেষ্টা রুখে দাঁড়ায় বাংলার দামাল ছাত্রসমাজ। ১৯৫২ সালের আজকের দিনে মাতৃভাষা বাংলার মর্যাদা প্রতিষ্ঠার দাবিতে এ দেশের ছাত্র-জনতার রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল ঢাকার রাজপথ। তাদের সেই সংগ্রাম এবং আত্মত্যাগ জাতি হিসেবে বাঙালিকে আজ বিশ্বের ইতিহাসে অবিস্মরণীয় করেছে। বায়ান্নর একুশে ফেব্রুয়ারি স্মরণে বাংলাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে ২০০০ সাল থেকে প্রতি বছর দিনটি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে সারা বিশ্বে। বাংলাদেশে এটি শহীদ দিবস হিসেবে পরিচিত।
বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে আজ শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হবে ভাষা আন্দোলনে শহীদ সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার, শফিউরদের।
শ্রদ্ধা জানানো হবে ভাষা আন্দোলনের উৎসপুরুষ ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, সংগঠক প্রফেসর আবুল কাসেম থেকে শুরু করে ভাষাসৈনিক মোহাম্মদ তোয়াহা, আব্দুল মতিন, গাজীউল হক, অলি আহাদ, শামসুল আলম, গোলাম মওলা, আব্দুল গফুর, আনোয়ারুল হক খান, আলী আজমল, ইব্রাহিম তাহাসহ ওই আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী জানা-অজানা সবাইকে।
আজ দেশের প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে, প্রতিটি শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষাশহীদদের শ্রদ্ধা জানানো হবে। প্রতিটি শহীদ মিনার ভরে উঠবে ফুলে ফুলে। মানুষের ঢল নামবে ঢাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।
ঢাকার সব অলিগলি রাজপথ থেকে খালি পায়ে ফুল হাতে মানুষের মিছিল আজ ছুটবে ঢাকা মেডিকেল কলেজ-সংলগ্ন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের দিকে।
মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। বিবৃতি দিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারাও।
একুশের প্রথম প্রহরে (মঙ্গলবার রাত ১২টা ১ মিনিটে) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শুরু হবে। শুধু ঢাকাতেই নয়, সারা দেশের স্কুল-কলেজে, জেলা ও থানা প্রশাসনের উদ্যোগে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবে দেশের সর্বস্তরের জনগণ। পাড়ায়-মহল্লায় শিশু-কিশোরদের নিজ হাতে গড়া শহীদ মিনারও ভরে যাবে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছ থেকে পাওয়া ফুলেল শ্রদ্ধায়।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here