উত্তরা তিন নাম্বার সেক্টর বেইজিং হোটেলে চলছে রমরমা নারী ও মদের ব্যবসা

0
45
728×90 Banner

মোঃ রফিকুল ইসলাম মিঠু: উত্তরা ৩ নাম্বার সেক্টরের ২ নাম্বার রাস্তার ১ই বাসায় আবাসিক হোটেলের নামে চলছে রমরমা দেহ ও মদের ব্যবসা। আশেপাশের বাড়িওয়ালা ও দোকানদারেরা এ ব্যাপারে অভিযোগ করেন। দিনের বেলায় কপোত-কপোতিদের মিলন মেলা মিলে বলে অভিযোগ রয়েছে। অনেক লোক অভিযোগ করেন যুবক-যুবতীরা হোটেলটিকে ডেটিংয়ের জন্য একটি নিরাপদ স্থান বলে ব্যবহার করে থাকেন। বিনিময়ে হোটেল মালিক হাতিয়ে নেন হাজার হাজার টাকা। সরেজমিন তদন্তের জন্য হোটেলটিতে প্রবেশ করতে চাইলে সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। হোটেলটির মালিক বিষ্ণু সাহেবের সাথে টেলিফোনে কথা বলতে চাইলে তিনি উত্তেজিত হয়ে কোন উত্তর দিতে রাজি হননি। হোটেলের মালিক বিষ্ণু নিজেকে এশিয়া টিভির ২০% মালিক বলে দাবি করেন। তিনি নিজেকে অনেক বড় হাতের লোক বলে জানান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হোটেলের এক লোক বলেন তিনি শেখ সেলিমের মেয়ে জামাই প্রিন্সের একান্ত কাছের লোক। বিষ্ণু নিজেকে অনেক বড় প্রভাবশালী এবং শক্তিধর মনে করেন। কথার ছলে বিষ্ণু বলেন উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি ইলিয়াসকে আমি নিজেই এখানে এনেছি আমার স্বার্থেই। এ ব্যাপারে উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি ইলিয়াসের সাথে কথা হলে তিনি বলেন বিষ্ণু নামে কাউকে আমি চিনিনা।লোকমুখে শোনা যায় বিষ্ণুর সাথে রয়েছে উত্তরার কতিপয় সাংবাদিকের ভালো সখ্যতা। যে সকল সাংবাদিকদের নাম তিনি উল্লেখ করেন তাদের সাথে টেলিফোনে কথা বললে তারা বলেন আমরা এই ধরনের কোনো লোককে চিনি না বা তার সাথে আমাদের কোনো রকম কোনো সম্পর্ক নেই প্রয়োজনে আপনি নিউজ করেন। সচেতন মহল মনে করেন রাজধানীর উত্তরা তিন নম্বর সেক্টরের মতো জায়গায় এ ধরনের কোন আবাসিক হোটেলের প্রয়োজন নেই।উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি ইলিয়াস সাহেব বলেন কোনো অপকর্মের তথ্য পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই ব্যাপারে ৩ নং সেক্টর কল্যাণ সমিতির সভাপতি এবং সেক্রেটারি সাক্ষাৎকারের জন্য ৩ নং কল্যাণ সমিতি তে গিয়ে তাদেরকে পাওয়া যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × 4 =