কাপাসিয়ায় পুরাতন প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়ার অভিযোগ পরীক্ষার্থীদের

0
268
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: গাজীপুরের কাপাসিয়ায় ২০১৯ সালের এস এস সি/দাখিল পরীক্ষার্থীদের পুরাতন প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়ার অভিযোগে এলাকাবাসি তোলফার।
জানা গেছে, উপজেলার এস, এস, সি / দাখিল পরীক্ষার ২নং কেন্দ্র কাপাসিয়া-২ এর কেন্দ্র সচিব বেলাশী ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা বিল্লাল হোসাইনের নামে পুরাতন সিলেবাসে পরিক্ষা নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে সিংহশ্রী এমবি দাখিল মাদ্রাসার সুপার ১৩জন শিক্ষার্থীর রোল নাম্বার উল্লেখ্য করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর একটি অভিযোগ পত্র জমা দেন।
এ অভিযোগের বিষয়টি’র সত্যতা যাচাই করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা: ইসমত আরা ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার(৩ ফেব্রুয়ারী) রবিবার দুপুরে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। উপস্থিত শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৪জনকে পুরাতন সিলেবাসে পরিক্ষা নেওয়ার সত্যতাও পায়।এ সময় তিনি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, তদন্ত করে কেন্দ্র সচিবের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে। এবং ৪ জন পরিক্ষার্থীদের নামের তালিকা বোর্ডে পাঠানো হচ্ছে।
অনুসন্ধানে জানা যায়, কাপাসিয়া ২নং মাদ্রাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে (২ ফেব্রুয়ারী)শনিবার বেলাশী ফাযিল মাদ্রাসায় কোরআন মাজিদ ও তাজবিদ শিক্ষা পরিক্ষা শুরু হয়। এসময় ৩ নং হলো রুম কক্ষে সিংহশ্রী ইউনিয়নের এমবি দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের ২০১৪/১৫ সেশনের পুরাতন সিলেবাসে ভিন্ন প্রশ্নে পরিক্ষা নেয়া হয়েছে । পরিক্ষা শেষ হলে এলাকার এ খবর শিক্ষার্থীদের মোখথেকে এখানে সেখানে ছরিয়ে পরে । বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকার লোক জনের মাঝে উত্তেজনার জ্বর শুরু হয় ।
এবিষয়ে জানতে চাইল, বেলাশী ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা বিল্লাল হোসাইন কেন্দ্র সচিব জানান, কক্ষ পরিদর্শক ভূল করে নতুন পরিক্ষার্থীদের হাতে পুরাতন প্রশ্ন বিতরণ করেন । আমি ৪ থেকে ৫ মিনিটের মধ্যে জানতে পেরে তাদের খাতা তুলে আলাদা করে রাখি। এতে ছাত্রদের কোন অসুবিধা হয় নাই বলে জানান। কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্বে থাকা বড়িবাড়ী ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক আবুল হোসেন ও দিঘাব আমানউল্লাহ বালিকা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক সিরাজুল হককে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।
শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, আমরা নতুন এবং নতুন সিলেবাসের শিক্ষার্থী। কিন্তু আমাদের পুরাতন সিলেবাসের প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।ওই কেন্দ্রের এক ইমরান জানান, ঘটনাটি আমি শুনেছি,তবে এটা সত্য ঘটনা, কয়েকজন শিক্ষার্থীকে পুরাতন সিলেবাসে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here