খাস জমি উদ্ধার, টক অব দি কলাপাড়া

0
300
728×90 Banner

কলাপাড়া প্রতিনিধি : যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী শামীম আল সাইফুল সোহাগের দখলে থাকা অন্তত পাঁচ একর খাস জমি সরকারের নিয়ন্ত্রণে আনার খবরটি কলাপাড়ার সকল মহলে আলোচিত হচ্ছে। মঙ্গলবার দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) অনুপ দাশের নেতৃত্বে পুলিশের সহায়তায় বড় বালিয়াতলী এলাকার এ জমি দখলমুক্ত করে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসকের সাইনবোর্ড দেয়া হয়েছে। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে আলোচিত হয় খবরটি। এ জমি ছাড়াও স্থানীয় কয়েক ভুমিহীন পরিবারকে বন্দোবস্ত দেয়া জমিও দখলের অভিযোগ রয়েছে সাইফুল সোহাগের বিরুদ্ধে। অনুপ দাশ জানান, কলাপাড়া উপজেলা খাস জমি ব্যবস্থাপনা ও বন্দোবস্ত কমিটির সভাপতি ও উপদেষ্টার নির্দেশক্রমে সরকারের খাস জমি উদ্ধার প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে এ অভিযান করা হয়েছে। জেএল নম্বর ৩৮, সোনাপাড়া মৌজার ৩১৯১ ও ৩১৯২ নম্বর দাগের এ জমির কিছু অংশ সরকার কয়েকজন ভূমিহীনকে বন্দোবস্ত দেয়। তাদেরকেও হয়রানি, জমিতে লোনা পানি তুলে দেয়াসহ বিভিন্ন ধরনের মামলা-হামলার অভিযোগ রয়েছে। যা উদ্ধার করা হলো। বিপুল পরিমান খাস জমি উদ্ধারে স্থানীয় সাধারণ মানুষ স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। শামীম আল সাইফুল সোহাগ বিগত সংসদ নির্বাচনেও মনোনয়ন চেয়েছিলেন। এখন চেষ্টা করছেন উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনয়ন চেয়ে। যদিও শামীম আল সাইফুল সোহাগ নিজেসহ তার পরিবারের পক্ষ থেকে বরাবরের মতো দখলের অভিযোগ অস্বীকার করে এ জমি তারা লিজ নিয়ে মাছ চাষ করছিলেন। সহকারী কমিশনার ভূমি অনুপ দাশ জানান, এখন কোন লিজ কিংবা ইজারা নেই। সম্পুর্ণ জমি খাস। সরকারের। যা দখলমুক্ত করে সরকারের দখলে নেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here