গাজীপুরে পরিবারের সকলকে জিম্মি করে বাড়ি দখলের চেষ্টা

0
15
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক :গাজীপুরে ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে একটি পরিবারের সকলকে জিম্মি করে বাড়ি জবরদখল চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলায় ওই পরিবারের ৭০ বছরের বৃদ্ধাসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত নবিনা খাতুন (৭০) ও তার ছেলে আমিরুল ইসলামকে (৪৩) গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত বুধবার মহানগরের গাছা থানার কামারজুরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, কামারজুরি এলাকার দুই আমিরুলদের মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। গত বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় আমিরুল ভাড়াটে সন্ত্রাসী নিয়ে প্রতিপক্ষ আমিরুল ইসলামের বাড়ির বাউন্ডারি ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে জবরদখলের চেষ্টা চালায়। এসময় আমিরুল ইসলাম বাধা দিলে তাকে দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। তাকে রক্ষার জন্য তার বৃদ্ধা মাসহ পরিবারের সদস্যরা এগিয়ে গেলে প্রত্যেককেই বেধড়ক মারপিট ও কুপিয়ে আহত করা হয়। ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা ঘটনার প্রমাণ বিনষ্ট করতে বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙ্গে ফেলে এবং আহতদের একটি ঘরে আটকে রেখে বাড়ির একটি অংশে টিনের বেঁড়া দিয়ে জবরদখলের চেষ্টা চালায়। এসময় ওই পরিবারের আহত সদস্যদের আত্মচিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীরা গুরুতর আহত বৃদ্ধা নবিনা খাতুন ও তার ছেলে আমিরুল ইসলামকে উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। আমিরুল ইসলামের স্ত্রী শামসুন্নাহার (৪০) ও ছেলে শিহাবকে (১৮) স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়।
এব্যাপারে রোববার যোগাযোগ করা হলে গাছা থানার ওসি মো. ইব্রাহিম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে সিসিটিভি ফুটেজসহ প্রয়োজনীয় আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আমিরুল ইসলাম তার ভগ্নিপতির মাধ্যমে থানায় লিখিত অভিযোগ পাঠিয়েছেন। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here