গাজীপুরে মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী নামের রাস্তা দখলের অভিযোগ

0
254
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: মুক্তিযোদ্ধা নামকরণ রহমত আলী নামের রাস্তা দখল করে ঘর-বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ ইউএনও অফিসে দায়েরের পর স্থানীয় চেয়ারম্যান কে সমাধান করার নির্দেশ দিলে তাঁর নির্দেশ অমান্য করে নির্মাণ কাজ করায় পূনরায় ইউএনও অফিস এবং সেখান থেকে থানায় অভিযোগ করলেও তিনদিন সময় পেছালো শ্রীপুর মডেল থানার এসআই জাকির হোসেন।
উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলীর ছেলে নুরে আলম সিদ্দিক ৩ ফেব্রুয়ারি রবিবারে জানান, ফরিদপুর-মুলাইদ গ্রামের একটি সংযোগ সড়ক আমার বাবার নামে করা হয়। প্রায় আধা কিলোমিটারের পরে অবৈধভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশ্যে কিছু অসাধু ব্যক্তিরা সড়কের গতি পথ পরিবর্তন করে ফেলে। সেই রেকর্ডকৃত রাস্তা ব্যবহার করে তাঁর (মুক্তিযোদ্ধা) পরিবারের লোকজন চলাচল করতো। হঠাৎ একই এলাকার আফির উদ্দিন মোল্লা সড়কের জমি দখল করে বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু করে। এতে আমরা অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছি !
চেয়ারম্যানের নির্দেশ অমান্য করে নির্মাণ কাজ করায় ইউএনও অফিস থেকে পূনরায় থানায় অভিযোগ দিতে বলায় আমি থানায় অভিযোগ দায়ের করি। গত বৃহস্পতিবার থানায় বিষয়টির সমাধান করার কথা থাকলেও বিবাদিপক্ষের অনুরোধে আরও তিনদিন সময় পিছিয়ে রবিবার সমাধান করার কথা বলা হয়েছিল! কিন্তু আজকেও আরেকবার সময় পিছিয়ে ৪ ফেব্রুয়ারির কথা বলেছেন দায়ীত্বরত এসআই জাকির হোসেন। গত শুক্রবারে নিষেধ অমান্য করে আবার নির্মাণ কাজ শুরু করলে দায়ীত্বরত এসআই মোঃ জাকির হোসেন কে জানালে তিঁনি মুঠোফোনে নিষেধ করলে কাজ বন্ধ করেছিলেন।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত আফির উদ্দিন মোল্লা জানান, আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলে পরবর্তীতে চেয়ারম্যান কে তদন্তের দায়ভার দিলে তিনি প্রায় শতাধিক মানুষের সামনে বলে গিয়েছেন রাস্তাটি সরকারি নয়। চেয়ারম্যান-থানা পর্যন্ত দায়ীত্ব দেয়া হলে আগামী রবিবার শ্রীপুর থানায় বসে সমাধান করা হবে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নূরুল ইসলাম জানান, নকশাতে রাস্তা উল্লেখ থাকলেও বাস্তবে রাস্তা পাওয়া যায়নি। সঠিক তথ্য নির্ণয়ের জন্য এ পর্যন্ত জমি মাপজোখ করা হয়নি। এ ব্যাপারে সমাধানের আগে বাড়ি নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখতে বলছিলাম, কিন্তু নির্দেশ অমান্য করেও কাজ অব্যাহত রাখায় নুরে আলমকে থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ প্রদান করি।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here