টঙ্গীর বিসিক এলাকায় গার্মেন্টস শ্রমিকদের তান্ডব, বিজিবি মোতায়েন

0
245
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: নূন্যতম মজুরি কাঠামো উন্নিত করন ও বাস্তবায়নের দাবিতে টঙ্গী বিসিক, গাজীপুরা এলাকায় বুধবার দিনের প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা কর্মবিরতির পাশাপাশি রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ, ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও মহাসড়ক অবরোধ করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কাঁদানী গ্যাস নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এসময় সাংবাদিকসহ অন্তত ২০জন শ্রমিক আহত হয়। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকার শতাধিক কারখানা ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও শিল্প এলাকায় আইনশৃংখলা নিয়ন্ত্রনে রাখতে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।


পুলিশ ও শ্রমিকরা জানায়, বুধবার সকালে গাজীপুরের টঙ্গীর গাজীপুরা এলাকায় হপলোন, ভিয়েলাটেক্সসহ টঙ্গী বিসিকের সুমি ফ্যাশন, রানিং ফ্যাশন, রেডিয়েন্টস, পেট্রিয়ট এ্যাপারেলস লিমিটেড, ট্রিভোলী, সর্দার এ্যাপারেলস, পিংকি গার্মেন্টস, নর্দান অ্যাপারেলসহ আশেপাশের কারখানার শ্রমিকেরা নূন্যতম মজুরি কাঠামো বাড়ানো ও বাস্তবায়নের দাবিতে কর্মবিরতি পালন করে। পরে তারা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করে এবং কারখানাগুলোর সামনে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে আতংক সৃষ্টি করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে গার্মেন্টস ভাংচুর করে। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ, থানা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ শ্রমিকদের মহাসড়ক ও গার্মেন্টস কারখানার সামনে থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশের লাঠিচার্জে অন্তত ২০ শ্রমিক আহত হয়। পরে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ার সেল নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দিলে ওইসব সড়কে যান চলাচল শুরু হয়। পরে শিল্প এলাকায় কারখানাগুলোর সামনে জলকামান ও বিজিপি মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় শতাধিক কারখানা ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।
সুমি এ্যারেলস’র মালিক রেজাউল হোসেন জানান, আমাদের শ্রমিকরা সরকার ঘোষিত বেতন কাঠামো অনুযায়ী তাদের মজুরি পাচ্ছে। আমরা বেতন ও মজুরির ব্যাপারে সরকারী গেজেটকে পূর্ণভাবে অনুসরন করছি। একটি বহিরাগত সন্ত্রাসী ও নাশকতাকারী চক্র সাধারণ শ্রমিকদের ভূল বুঝিয়ে এ ধরনের অরাজগতা সৃষ্টি করছে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here