ট্রেনের টিকিট এবার ভেন্ডিং মেশিনে, দাঁড়াতে হবে না লাইনে

0
72
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : ট্রেনের টিকিট নিয়ে ভোগান্তি দূর হচ্ছে, অবসান হচ্ছে যাত্রীদের দীর্ঘ অপেক্ষার। এখন থেকে অটোমেটিক ভেন্ডিং মেশিনে যাত্রী নিজেই কাটতে পারবেন টিকিট। এরই মধ্যে কমলাপুর, বিমানবন্দরসহ বিভিন্ন স্টেশনে ১৫টি ভেন্ডিং মেশিন বসানো হয়েছে। দেশের আরো কিছু স্টেশনে মেশিন বসানোর কাজ চলছে।
সোমবার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার মাসুদ সারোয়ার এসব তথ্য জানিয়েছেন।
২১টি স্টেশনে ভেন্ডিং মেশিন বসানো হবে
কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার মাসুদ সারোয়ার বলেন, কমলাপুরে দুটি অটোমেটিক টিকিট ভেন্ডিং মেশিন বসানো হয়েছে। মোট ৪টি মেশিন বসানো হবে। ঢাকা, চট্টগ্রামসহ ২১টি স্টেশনে ভেন্ডিং মেশিন বসানো হবে।
রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, কমলাপুর স্টেশনে ৪টি, বিমানবন্দর স্টেশনে ২টি, রাজশাহী স্টেশনে ২টি, চট্টগ্রাম স্টেশনে ২টি ভেন্ডিং মেশিন বসানো হয়েছে। এছাড়া সিলেট, কক্সবাজার, খুলনা, পঞ্চগড় ও রংপুর স্টেশনে ১টি করে ভেন্ডিং মেশিন বসানো হয়েছে।
প্রতি টিকিটে চার্জ লাগবে অতিরিক্ত ২০ টাকা
রেলওয়ে অপারেশন দফতর সূত্রে জানা গেছে, আধুনিক এ মেশিনের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকবে সহজ ডটকম। এর মাধ্যমে যাত্রীরা সহজেই নিজের টিকিট নিজে কাটতে পারবেন। তবে এজন্য অনলাইনে টিকিট কাটতে যে পরিমাণ চার্জ (২০ টাকা) দিতে হয়, ভেন্ডিং মেশিন থেকে টিকিট কাটলে একই পরিমাণ চার্জ কাটা হবে। এছাড়া ইন্টারনেট ও মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপের মাধ্যমে যাত্রীরা টিকিট কাটতে পারবেন।
অতিরিক্ত চার্জে যাত্রীদের অসন্তোষ
রেলওয়ের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানালেও টিকিট কাটতে অতিরিক্ত ২০ টাকা চার্জ লাগায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন যাত্রীরা।
এক যাত্রী বলেন, স্টেশনে গিয়ে টিকিট ভেন্ডিং মেশিনে টিকিট কাটতে যদি অনলাইন চার্জ দিতে হয় তাহলে এই মেশিনের দরকার কী!
বিনা টিকিটের যাত্রীরোধ এবং তাৎক্ষণিক ভ্রমণ নিশ্চিতে এই ব্যবস্থা
এ সেবা চালুর বিষয়ে রেলওয়ের মহাপরিচালক সরদার সাহাদাত আলী বলেন, রেলে বিনা টিকিটের যাত্রীরোধ এবং তাৎক্ষণিক ট্রেনে ভ্রমণ করা যাত্রীদের সেবা নিশ্চিত করতে এমন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। আমরা শুরুতে ১৫টি মেশিন স্থাপন করেছি। পর্যায়ক্রমে দেশের সবকটি অনলাইনভিত্তিক স্টেশনে এ ভেন্ডিং মেশিন স্থাপন করা হবে। স্টেশন কাউন্টারে ভিড় এড়াতে এ মেশিন সহায়ক হবে।
যাত্রার ১৫ থেকে ৬০ মিনিটের মধ্যে মেশিন থেকে খুব সহজেই নিজের টিকিট নিজেই কাটতে পারবেন যাত্রীরা। এ ব্যাপারে রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মচারীরা যাত্রীদের সহযোগিতা করবেন বলেও জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here