ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী অংশে মারাত্মক যানজট, পরিবহন যাত্রীদের দূর্ভোগ

0
39
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী অংশে খানাখন্দ ও মহাসড়কে ছোট-বড় গর্তে বৃষ্টির পানি জমে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। আগের দুদিনের মতো দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে এই সড়কে। টঙ্গীর গাজীপুরা থেকে স্টেশনরোড পর্ষন্ত মাত্র কয়েক মিনিটের পথ পেরোতে যাত্রীদের সময় লেগে যাচ্ছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা । ফলে এ রুটে চলাচলকারী যাত্রীরা মারাতœক দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। গাজীপুর মহানগর ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা যানজট নিরসনে চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।
যাত্রী ও বিভিন্ন পরিবহণের চালকরা জানান, বিআরটি এর কাজ টঙ্গীর মিলগেইট এ চলমান থাকা, ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়ক প্রস্তুত করনের জন্য রাস্তা খুড়াখুড়ি এবং ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাবে ভারি বৃষ্টির কারণে রাস্তায় খানা খন্দকের সৃষ্টি হওয়ায় মঙ্গলবার থেকে মহাসড়কে তীব্র যানজট তৈরি হয় ।
বিআরটি কর্তৃপক্ষ খানাখন্দ মেরামত ইট-সুড়কি দিলেও ভারি যানবাহন চলাচল করায় তা টিকছে না। বৃহস্পতিবার টঙ্গীর গাজীপুরা থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত ঢাকাগামী লেনে প্রায় ছয় কিলোমিটার এলাকা ও গাজীপুর গামী লেনে স্টেশনরোড থেকে চেরাগআলী পর্ষন্ত যানজট তৈরি হয়েছে।
গাজীপুর জেলা ট্রাক ও কার্ভাট ভ্যন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আবদুর রশিদ বলেন, আমাদের পরিবহণগুলো দৈনিক ঢাকায় ছয়বার যাতায়াত করত, আর যানজটের কারণে এখন এক-দুবার যাতায়াত করাই কঠিন। এতে মালিক, শ্রমিকদের আয়-উপার্জন কমে গেছে, তারা খুব কষ্টের মধ্যে দিন পার করছে।
গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপপুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক বিভাগ) মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ঢাকাগামী গাড়িগুলো দুই-তিন লেনে এসে টঙ্গীর মিলগেট এলাকায় এক লেনে ঢাকায় প্রবেশ করছে। যানজট নিরসনে গত রাতে ওই অংশে ময়মনসিংহমুখী মহাসড়কে এক লেনের মেরামতকাজ হয়েছে। আজ থেকে ঢাকামুখী লেনের মেরামতকাজ শুরু হয়েছে।
এ ছাড়া সড়ক ভবনে সওজের প্রধান প্রকৌশলীর সভাপতিত্বে বুধবার যানজট নিরসনের ব্যাপারে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে শুক্র ও শনিবারের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত মহাসড়কের এ অংশটি আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে সম্পূর্ণভাবে যানবাহন চলাচল উপযোগী স্থায়ী রাস্তা করে দেবে বিআরটি কর্তৃপক্ষ।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here