দেশে আরও ৩ কোটি ডোজ টিকা আসছে

0
25
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আরও তিন কোটি ডোজ টিকা আসছে। স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য বাংলাদেশের জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ পাওয়া উপলক্ষে শনিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে এসে এ তথ্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এবার ভার্চুয়ালি সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আরও তিন কোটি ডোজ টিকা আমদানির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্য দেশ থেকে টিকা আমদানি সম্ভব না হলে দেশেই যাতে তৈরি করা যায়, সে বিষয়েও নির্দেশনা রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে করোনাভাইরাস মোকাবিলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষককে টিকা নিতে হবে। যারা হোস্টেলে থাকবে তাদের মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী যাদের টিকা নেওয়ার কথা, তাদেরও টিকা নিতে হবে। শেখ হাসিনা জানান, তিনিও নিজেও টিকা নেবেন। তবে দেশের মানুষের একটা অংশকে টিকা দেওয়ার পর তিনি নেবেন। তিনি বলেন, কতজনকে টিকা দিতে পারলাম সেটাই বড় বিষয়। আমি নিজে একটা টিকা না নিয়ে অন্য একজন নিলে, যদি তার জীবন বাঁচে, সেটাই বড়। সরকারের পরিকল্পনায় জনগণের একটা অংশকে টিকা দেওয়ার বিষয়টি ঠিক করা আছে। সেই পরিমাণ লোককে টিকা দিয়েই আমি টিকা নেব। কাউকে বাদ রেখে আগে নেব না।
বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ পেয়েছে। সেই সুখবর দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণে বলেন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের ফলে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশ একটি প্রত্যয়ী ও মর্যাদাশীল দেশে হিসেবে জায়গা করে নেবে।তিনি ভাষণের শুরুতেই বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে প্রায় এক বছর পর আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। তবু সরাসরি নয়, ভার্চুয়ালি। আজ অবশ্য আমি আপনাদের সামনে উপস্থিত হয়েছি, বাংলাদেশের একটি মহৎ ও গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের সংবাদ দেওয়ার জন্য। ‘বাংলাদেশ গতকাল স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে। আমরা উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার পূর্ণ যোগ্যতা অর্জন করেছি।’ তিনি আরও বলেন, আমাদের এই উত্তরণ এমন একটা সময়ে ঘটল, যখন আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি; আমরা মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে। বাংলাদেশের জন্য এ উত্তরণ এক ঐতিহাসিক ঘটনা।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

five + 10 =