নওগাঁয় প্রতিমা ভাঙচুরের অভিযোগে যুবক আটক

0
10
728×90 Banner

মোঃ হাবিবুর রহমান,নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মহাদেবপুরে সড়কের পাশের মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুরের অভিযোগে জনতা আবদুল খালেক (৩৫) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। সে জেলার পোরশা উপজেলার মশিদপুর ইউনিয়নের সরিয়ালা গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে। গত সোমবার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নওগাঁর পুলিশ সুপার রাশিদুল হক, মহাদেবপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়ব্রত পাল ও মহাদেবপুর থানার ওসির দায়িত্বে থাকা ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জানান, রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই যুবক উপজেলার চকহরিবল্লভ উত্তরপাড়ায় একটি মাজারে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে দোকান থেকে চিপস কিনে নিয়ে মহাদেবপুর-নজিপুর পাকা সড়কের পশ্চিমপাশে অবস্থিত কালি মন্দিরে যায়। সেখানে রাখা কালি প্রতিমার পায়ে চিপস ফেলে দিয়ে প্রতিমা নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। ফলে প্রতিমাটি ভেঙ্গে যায়। জানতে পেরে গ্রামের লোকজন তাকে ধাওয়া করে পাশের মাজার থেকে আটক করে। পরে পুলিশে খবর দিলে থানার এসআই জয় দাস ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে থানায় নিয়ে আসেন।
এব্যাপারে ওই মন্দিরের পুরোহিত চকহরিবল্লভ গ্রামের শ্রীপদ মন্ডলের ছেলে অসিত চন্দ্র মন্ডল বাদি হয়ে মহাদেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।
সরেজমিনে ওই এলাকায় গিয়ে পাকা সড়কের পাশে মন্দিরটি অরক্ষিত অবস্থায় দেখা যায়। স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিমাটি এখানে ছিল। ভাঙচুর করায় সকালে তা একটি পুকুরে ডুবিয়ে দেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here