নিরাপদ সড়ক আইন ও নিরাপদ সড়ক ব্যবস্থাপনা চাই… পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন

0
24
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :  বাংলাদেশ অটোরিক্সা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসাইন, প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে ২২ অক্টোবর সড়ক নিরাপদ দিবস উদযাপন রাষ্ট্রীয়ভাবে পালন করা হয়। আমরাও নিরাপদ সড়ক চাই। কারণ পরিবহন শ্রমিকগণ প্রতিদিন ১৬ থেকে ১৮ ঘন্টা সড়কে থাকেন। তাদের নিরাপদ সড়ক বেশি দরকার। নেতৃবৃন্দ বলেন, সড়কে অবকাঠামো নিরাপদ করা প্রথমেই সর্বজনী দরকার পরিবহন, শ্রমিকদের জন্য সর্বজনীয় নিরাপদ আইন দরকার, নিরাপদ সড়ক ব্যবস্থাপনা অপরিহার্য। কারণ তা না হলে নিরাপদ সড়ক হবেনা বলে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সবার আগে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটি) কে বেশি নিরাপদ করা দরকার। শ্রমিকদের কল্যাণ তহবিল আইন, শ্রমিকদের কর্মঘন্টা, নিয়োগপত্র, মজুরী, বিশ্রাম আইন বাস্তবায়ন করা দরকার। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, চালকদের ডোপ টেস্টের নামে হয়রানী বন্ধ করা, আইনের বৈষম্য দূরীকরণ করা, সর্বজনী সড়ক পরিবহন আইন চালু করা খুবই অপরিহার্য। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সড়ক-মহাসড়কের পাশে সার্ভিস লেন/বাইলেন করার কথা ২০১৫ সালে সরকার ঘোষণা করেছিল। কিন্তু অদ্যাবদি তা বাস্তবায়ন করা হয় নাই। যার ফলে বয়স্ক রোগী, স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থী, শহরের জেলা-উপজেলায় কোর্ট-কাচারী, ব্যবসায়ী কাজে যাতায়াতের জন্য যাত্রীগণ নানামুখী সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। সরকার মহাসড়কের পাশে স্কুল-কলেজ, শিল্প কারখানা, হাট-বাজার, ধান শুখানো, পাট শুখানো এখনও বন্ধ করতে পারেনি। যে কারণের মহাসড়কে নির্বিগ্নে গাড়ী চলাচলে বাধা সম্মুখীন হচ্ছে। আমরা পরিবহন শ্রমিকদের উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য সরকার, কর্তৃপক্ষের নিকট বার বার আবেদন করেও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করাতে পারি নাই।
এমতাবস্থায় নেতৃবৃন্দ মনে করেন, নিরাপদ সড়ক করতে হলে সড়কের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে। উপরোক্ত সমস্যাদি ও প্রস্তাবগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন করে নিরাপদ সড়ক করা সম্ভব বলে নেতৃবৃন্দ মনে করেন।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here