পাওনাদারের চাপে টঙ্গীতে যুবকের আত্মহত্যা

0
107
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : পাওনাদারের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে গাজীপুরের টঙ্গীতে এক যুবক আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। বুধবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে টঙ্গীর আউচপাড়া এলাকায় মঙ্গলবার দিবাগত রাতে কোনো এক সময় তিনি আত্মহত্যা করেন বলে ধারণা করছে পুলিশ।
ওই যুবকের নাম জাহিদ হাসান জনি (২৪)। তিনি ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানার বড়ুয়া গ্রামের কামাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি টঙ্গী পশ্চিম থানার আউচপাড়ার এলাকার লিয়াকত আলীর পাঁচ তলায় একটি কক্ষে ভাড়া থাকতেন।
পুলিশ জানায়, জাহিদ গাজীপুরের পুবাইল এলাকায় বাংলালিংকের আঞ্চলিক পরিবেশক সিটি কম মার্কেটিং লিমিটেডের বিক্রয় প্রতিনিধি ছিলেন। কয়েক মাস আগে ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা কোম্পানির হিসাব বিভাগে জমা না দিয়ে স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে টঙ্গীতে আসেন। কয়েক দিন আগে জাহিদের খোঁজে বাংলালিংকের কর্মকর্তারা তাঁর বাসায় আসেন। পরে বাংলালিংকের আঞ্চলিক পরিবেশক সিটি কম মার্কেটিংয়ের কর্মকর্তাদের কিছু টাকা দেন। প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা বাকি টাকা পরিশোধ করতে কয়েক দিনের সময় বেঁধে দিয়ে চলে যান।
এর কয়েক দিন পর মঙ্গলবার রাতে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় রশি পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন জাহিদ।
জাহিদের স্ত্রী বলেন, ‘বাংলালিংকের আঞ্চলিক পরিবেশকের কর্মকর্তারা টাকা পরিশোধের জন্য সময় বেঁধে দিলে আমার স্বামী মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। গতকাল এ বিষয়ে আমাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হলে আমি অভিমান করে মঙ্গলবার রাতে বাড়ির মালিকের বাসায় গিয়ে ঘুমাই। বুধবার সকাল ১০টার দিকে বাসায় ফিরে ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দিই। পুলিশ ঘরের ভেতর থেকে লাশ উদ্ধার করে।’
টাকার বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে বাংলালিংকের আঞ্চলিক পরিবেশক সিটি কম মার্কেটিং লিমিটেডের পরিচালক মনিরুল ইসলাম শামিম ‘মিটিংয়ে আছি’ বলে এড়িয়ে যান।
টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বলে ধারণা করছে পুলিশ। একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here