পূবাইল থানা আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করতে আজিজুর রহমান শিরিষ এর বিকল্প নেই

0
551
728×90 Banner

মোঃদেলোয়ার হোসেন,পূবাইল (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুর মহানগরের আওতাধীন পূবাইল থানা আওয়ামীলীগ এর সম্মেলন আগামী ৬ই নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। দীর্ঘ ১৮ বছর পর হতে যাওয়া এই সম্মেলনকে ঘিরে এলাকার নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। সম্মেলনের স্থান হিসাবে পূবাইল আদর্শ ডিগ্রি কলেজ মাঠকে প্রস্তুত করা হচ্ছে। সম্মেলনকে ঘিরে ইতি মধ্যে স্থানীয় নেতা কর্মীদের মাঝে চলছে ব্যাপক বিচার বিশ্লেষন। কে হচ্ছেন সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক। সরেজমিনে পূবাইল থানা এলাকায় খোজ নিয়ে জানা যায় যে, পূবাইল থানা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি পদপ্রার্থী আজিজুর রহমান শিরিষ ১৯৭৬ সালে পূবাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বৃহত্তর ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়। ১৯৮৮ এবং ১৯৯৪ সনে পূবাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই মেয়াদে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। ২০০৩ সাল পর্যন্ত যা চলমান থাকে। ১৯৯৮ইং সনে পূবাইল ইউনিয়ন আওয়ামীগের সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৩ইং সনে গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি নির্বাচিত হন। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন গঠিত হওয়ার পর ৪০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ২ বার নির্বাচিত হন। ২০১৮ইং সনে গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সদস্য নির্বাচিত হন। ৪২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান মাষ্টার বলেন যে, আজিজুর রহমান শিরিষ আওয়ামীলীগ পরিবারের ও মুক্তিযোদ্ধাদের পাশে থেকে বিভিন্ন ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আমি মনে করি তিনি সভাপতি হলে আমাদের সকলের জন্য ভাল হবে। ৪০নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আফজালুর রহমান মৃধা বলেন যে, গত ১৬ডিসেম্বর পূবাইল থানার মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেন। গাজীপুর মহানগর ৪০নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সদস্য সচিব সোলায়মান মোল্লা জানান যে, আজিজুর রহমান শিরিষ সব সময় জনগণের পাশে ছিল। সব সময় এলাকার উন্নয়ন করেছেন। তিনি পূবাইল থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি নির্বাচিত হলে আওয়ামীলীগ সুসংগঠিত হবে। ৪১নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর বজলুর রহমান বাছির বলেন যে, আজিজুর রহমান শিরিষ সব সময় আওয়ামীলীগের দলীয় অনুষ্ঠান গুলোতে নেতাকর্মীদের নিয়ে উপস্থিত থেকেছেন। গরীব দুঃখি মানুষের মুখে শোনা যায় যে আজিজুর রহমান শিরিষ এর মতো নেতা হয় না। পূবাইল থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী আজিজুর রহমান শিরিষ বলেন, নেতৃবৃন্দ যদি আমাকে যোগ্য মনে করেন তাহলে সভাপতি নির্বাচিত করবেন। তৃণমূলের নেতা কর্মীদের যথাযথ মূল্যায়নে আমার চেষ্টা সবসময় অব্যহত থাকবে। আমি ১৮ বছর বয়স থেকে জনগণের সেবা করে যাচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here