বলিয়াদী জমিদার বাড়ী কালিয়াকৈরে ব্যক্তি মালিকানায়

0
39
728×90 Banner

জাকির সিকদার : ৪০০ শত বছরের ইতিহাস ব্যক্তি মালিকানায় বলিয়াদি জমিদার বাড়ি কালের নিদর্শন বিশ্বের মাঝে নাই।সরকারি নিয়ন্ত্রণ বিহিন কোন জমিদার বাড়ি বাংলাদেশে আছে মনে হয় না।
তাক লাগিয়ে দিল বলিয়াদি জমিদার বাড়ি ঘুরে এসে অবাক কান্ড চোখে হক চকিয়ে আছে এলাকার জনগন।
হযরত আবু বক্কর রাঃ বংশধর তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী। বড় ও ছোট তরফদার নামে দুটি জমিদার বাড়ি আছে। এখানে ৯ আনার জমির উপর বিস্তারিত বাড়ির সদর দফতর ১৬১২ সালেই নির্ধারিত ছিল কালিয়াকৈর,ধমারাই,সাভার,গাজীপুর পরিচালক ভবন বা শাসন ব্যবস্থার আখড়া। মুসলমানদের মাঝে ইসলামের ধর্মীয় চেতনায় বিশ্বাসী করতে আগ্রহী হয়ে হযরত আবু বক্কর রাঃ এর বংশধর বলিয়াদি জমিদার বাড়ি স্থান নির্ধারণ করেন ৪ শত বছর পূর্বে। তৎকালীন কবর স্থান ও মসজিদ এখনও আছে। ব্যক্তি মালিকানায় পরিচালিত ৩৭ তম বংশের কৃতী সন্তান তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী।
গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার বলিয়াদী ইউনিয়নে ৪০০ বছরের ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশের অন্যতম প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন বলিয়াদী জমিদার বাড়ী (Baliadi Jamider Bari) অবস্থিত। ১৬১২ খৃস্টাব্দে মুঘল সম্রাট জাহাঙ্গীরের ফরমান বলে প্রতিষ্ঠিত বলিয়াদী এস্টেটের প্রথম কর্ণধর ছিলেন ইসলামের প্রথম খলিফা হযরত আবু বকর সিদ্দিকী (রাঃ) বংশধর কুতুব উদ্দিন সিদ্দিকীর পুত্র সাদ উদ্দিন সিদ্দিকী।
বর্তমান বলিয়াদী এস্টেটের মোতওয়াল্লী চৌধুরী তানভীর আহম্মদ সিদ্দিকী খলিফা আবু বকর সিদ্দিকীর ৩৭তম বংশধর। বলিয়াদী জমিদার বাড়ী বাংলাদেশ সরকারের প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের আওয়তাভুক্ত কোন সম্পত্তি নয় এবং জমিদারদের বংশধরাই বর্তমানে এই বাড়ির মালিক। বলিয়াদী জমিদার বাড়ীর থেকে মাত্র দুই কিলোমিটার দূরে রয়েছে শ্রীফলতলী জমিদার বাড়ি নামে আরও একটি জমিদার বাড়ি।
কিভাবে যাবেন
ঢাকার মহাখালী কিংবা অন্য যেকোন স্থান থেকে টাঙ্গাইলগামী বাসে কালিয়াকৈর বাইপাস নেমে রিকশা বা সিএনজি নিয়ে বলিয়াদী জমিদার বাড়ী পৌঁছাতে পারবেন। এছাড়া রাজধানী পরিবহণের বাস এয়ারপোর্ট এবং উত্তরা হয়ে কালিয়াকৈরের পথে চলাচল করে। রাজধানী পরিবহণের বাসে বলিয়াদী জমিদার বাড়ী কাছে শ্রীফলতলী মোড়ে নামতে পারবেন।
আবার গাবতলী বাস টার্মিনাল হতে মৌমিতা, ইতিহাস ও ঠিকানা পরিবহণের বাসে গাজীপুরের চন্দ্রা নামক স্থানে নেমে কালিয়াকৈর বাস স্ট্যান্ড এসে সেখান থেকে রিক্সা নিয়ে বলিয়াদী জমিদার বাড়ি যাওয়া যাবে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here