ভেরিফায়েড হলো ‘মোমিন মেহেদী’ ফেসবুক পেজ

0
87
728×90 Banner

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আনুষ্ঠানিকভাবে মোমিন মেহেদী Momin Mahadi ফেসবুক পেজকে স্বীকৃতি (ভেরিফায়েড) দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুক।
রাজনীতি ও গণমাধ্যমে গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সক্রিয় থাকা কলামিস্ট মোমিন মেহেদীর অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ https://www.facebook.com/MominMahadidu বুধবার এ স্বীকৃতি পায়।
মোমিন মেহেদী Momin Mahadi ফেসবুক পেজটি ভেরিফায়েড হওয়ায় এই সময়ের রাজনীতিক-শিক্ষক-কলামিস্ট ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব মোমিন মেহেদীর নামে ভুয়া আইডির মাধ্যমে জনগনকে বিভ্রান্ত করার সুযোগ কমে গেল।
দেশের রাজনীতি সচেতন নাগরিক এখন সহজেই তাঁর প্রকৃত পেজটি শনাক্ত করতে পারবেন। মোমিন মেহেদী Momin Mahadi ফেসবুক পেজের ফলোয়ার সংখ্যা বর্তমানে ৫২ হাজার ২ শতাধিক।
সাধারণত ফেসবুক বিভিন্ন দেশের স্বনামধন্য তারকা, সাংবাদিক, সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ও ব্যবসার পেজকে অফিসিয়াল হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে থাকে। মোমিন মেহেদীকে এ স্বীকৃতি প্রমাণ করে এটি অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ।
স্বীকৃতি দেওয়া ফেসবুক পেজের পাশে নীল রঙের টিক চিহ্ন (facebook-verified-icon) দেওয়া হয়, যা প্রমাণ করে এ পেজটি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক স্বীকৃত। বুধবার সকাল থেকে মোমিন মেহেদী Momin Mahadi ফেসবুক পেজে নীল রঙের ভেরিফায়েড টিক চিহ্ন দেখা যাচ্ছে।
উল্লেখ্য, মোমিন মেহেদী ১৯৮৫ সালে ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণ করেন। পৈত্রিক নিবাস বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জে। সাংবাদিকতার পাশাপাশি সাংগঠনিক কর্মকান্ডে যুক্ত হন ক্লাস সিক্সে অধ্যায়নকালীন সময় থেকে। ১৯৯৫ সালে তাঁর প্রথম লেখা প্রকাশিত হয় দৈনিক ইত্তেফাকে। ২০০৫ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র অধিকার আন্দোলন জোটের সাধারণ সম্পাদক ও পরবর্তীতে সভাপতি হন।
২০০৭ সালে ছাত্র আন্দোলনে যুক্ত থাকায় ষড়যন্ত্র ও মিথ্যেমামলায় গ্রেফতার হন। ২০১২ সালের ৩০ ডিসেম্বর রেডর‌্যালী’র মধ্য দিয়ে জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে তাঁর নেতৃত্বে আত্মপ্রকাশ করে নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবি।
সারাদেশে ৪৭ জেলা, ১০৭ উপজেলাসহ ১৬০ সাংগঠনিক কমিটির কার্যক্রম অব্যহত আছে। ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেন নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির নেতৃবৃন্দ।
মোমিন মেহেদী দৈনিক কাগজগুলোতে নিয়মিত কলাম লেখার পাশাপাশি শিক্ষকতা করছেন একটি বেসরকারি বিশ^বিদ্যালয়ের অতিথি শিক্ষক হিসেবে।
পেশায় প্রকাশক মোমিন মেহেদী প্রকাশনা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সাউন্ডবাংলা’র নির্বাহী পরিচালক। তাঁর রচিত ৬৩ টি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে।
উল্লেখযোগ্যগ্রন্থ হলো- ডিভোর্স(২০০০), শকুনেরা উড়ছে(২০০৭), সময়কথন(২০০৮), আমাদের পিতা তিনি আমাদের মিতাও(২০১০) ইত্যাদি। তাঁর সহধর্মিনী শান্তা ফারজানা লন্ডন থেকে উচ্চশিক্ষা শেষে দেশে এসে সুবিধা বঞ্চিত শিশু-কিশোরদের জন্য সাউন্ডবাংলা পথস্কুল (ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার) এবং মধ্যবিত্তদের জন্য সাউন্ডবাংলা কিডস স্কুল(সাভার ও খিলগাঁও) প্রতিষ্ঠা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 + 10 =