মহারাজের তাণ্ডব থামিয়ে তাইজুলের ‘পাঁচ’

0
49
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর স্পোর্টস ডেস্ক : প্রথম সেশন শেষ দিকে ব্যাট হাতে ঝড় তুলে ফিফটি তুলে নিয়েছিলেন কেশভ মহারাজ। দ্বিতীয় সেশনেও আগ্রাসন বজায় রেখে সেঞ্চুরির দিকে ছুটছিলেন এই ‘স্পিনার’।
তার তাণ্ডবেই দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসের সংগ্রহ ৪০০ ছাড়ায়। তবে তাকে সেঞ্চুরিবঞ্চিত করে ম্যাচে নিজের পঞ্চম উইকেট তুলে নিলেন তাইজুল ইসলাম।
এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৮ উইকেট হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসের সংগ্রহ ৪১৮ রান।
পোর্ট এলিজাবেথে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা চলছে। ৫ উইকেটে ২৭৮ রান নিয়ে আজ ব্যাটিংয়ে নামে স্বাগতিকরা। আর দিনের প্রথম ওভারেই রিভিও হারায় বাংলাদেশ। ওভারের শেষ বল কাইল ভেরেইনের প্যাডে লাগলে লেগ বিফোরের আবেদন করেন বোলার ও ফিল্ডাররা। আম্পায়ার সাড়া না দিলে খালেদের জোরাজুরিতেই রিভিও নেন অধিনায়ক মুমিনুল। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায় বল স্ট্যাম্প মিস করতো।
রিভিউ নষ্ট করার পর অবশ্য দিনের প্রথম ব্রেক থ্রুটা আসে খালেদের হাত ধরেই। তার গুড লেন্থের বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে ফিরেছেন দ. আফ্রিকার লোয়ার মিডল অর্ডার ব্যাটার কাইল ভেরেইনে (২২)। কিন্তু ভেরেইনার বিদায়ের পর যেন সাপে বর হয় স্বাগতিকদের জন্য। কারণ এরপর মহারাজ ও মুলডার মিলে গড়েছেন ৮০ রানের দারুণ এক জুটি। মহারাজ তো রীতিমতো ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করে মাত্র ৫০ বলে তুলে নিয়েছেন টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি। এক ওভার পরেই অবশ্য মুলডারকে বিদায় করে জুটি ভাঙেন তাইজুল। মুলডার এগিয় এসে খেলতে চাইলে বল অফ-স্ট্যাম্পে আঘাত হানে। ৭৭ বল স্থায়ী মুলডারের ব্যাট থেকে আসে ৩৩ রান। প্রথম সেশনে ২ উইকেট হারিয়ে প্রোটিয়ারা সংগ্রহ করে ১০৬ রান।
দ্বিতীয় সেশনেও আগের গতিতেই রান তুলছিলেন মহারাজ। বিশেষ করে তার তাণ্ডবের শিকার হয়েছেন টাইগার পেসার এবাদত হোসেন। ঝড়ের গতিতে রান তোলার পাশাপাশি সেঞ্চুরির দিকেও ছুটছিলেন মহারাজ। তবে সেঞ্চুরি থেকে ১৬ রান দূরত্বে তাকে থামিয়ে দেন তাইজুল। তার বলে সুইপ করতে চেয়েছিলেন মহারাজ। কিন্তু একটু আগেভাগেই খেলে ফেলায় বল তার ব্যাট ফাঁকি দিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙে দেয়। তবে ড্রেসিংরুমে ফেরার আগে ৯৫ বলে ৯ চার ও ৩ ছক্কায় ৮৪ রান করেন মহারাজ।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

sixteen + four =