মাদক ও সন্ত্রাস বন্ধ করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে ——- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

0
320
728×90 Banner

নাসির উদ্দীন বুলবুল/ মৃণাল চৌধুরী সৈকত: যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী গাজীপুর-২ আসনের এমপি জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, মাদক ও সন্ত্রাস কারো বন্ধু হতে পারে না। মাদক যারা বিক্রি করছে তারা সমাজ ধ্বংস করছে, আর যারা সেবন করছে তাঁরা নিজেকে ধ্বংস করছে। সমাজ ধ্বংসের এসব কারিগরদের কোন ছাড় দেয়া যাবে না। সে যেই হউক না কেন। পুলিশের মধ্যে যারা মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করছেন তাদেরকেও চিহিৃত করে আইনের আওতায় আনতে হবে। ঐক্যবদ্ধ ভাবে মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করতে হবে।

আজ রোববার দুপুরে টঙ্গী পূর্ব থানা কার্যালয় প্রাঙ্গনে পুলিশ সেবা সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত সূধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান এর সভাপতিত্বে, সিনিয়র সহকারী কমিশনার আশরাফুল আলমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, জেলা প্রশাসক ড.দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ন কবির, র‌্যাব-১ এর পিএসপি অধিনায়ক লে.কর্ণেল মো: সারওয়ার বিন-কাশেম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো: আজাদ মিয়া, ডিসি শরীফ, টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি কামাল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ প্রমূখ।
অনুষ্ঠানে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, গাজীপুর মেট্রোপলিটনের কার্যক্রম চালু হওয়ার পর বাড়ছে পুলিশি সেবা। টঙ্গী ও জয়দেবপুর এই দুইটি থানা ভেঙ্গে আটটি থানা হওয়ায় দিন দিন সেবা বাড়তে শুরু করছে নগরজুড়ে। এর মধ্যে অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, জরুরী প্রয়োজনে ৯৯ টোলফ্রি’র মাধ্যমে পুলিশ ডাকা, ফেসবুকে তথ্য প্রদান, ই-ট্রাফিকিংএর মাধ্যমে ট্রাফিক আইন আদায়, সড়কে মহাসড়কে গাড়ির কাগজপত্র ঠিক থাকলে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে চালকদের দেয়া হচ্ছে ফুলেল শুভেচ্ছাসহ নানা অপরাধ দমনেও নেয়া হচ্ছে আইনী ব্যবস্থা । প্রধান অতিথি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের প্রতিটি উপজেলায় যুব ও ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ হবে। সেখানে অনেক ধরনের সুযোগ সুবিধা থাকবে। এতে করে যুবকদের একটি বসার জায়গা হবে। ফলে খারাপ কাজে না জড়িয়ে যুবকরা খেলাধুলায় মনোযোগী হবে। এছাড়া এখানে অনেক কিছু শিখার থাকবে সেখান থেকে নিজেকে আত্মকর্মী হিসেবে গড়ে তুলতে পারবে। খেলাধুলার জন্য প্রতিটি জেলায় ১৩১টি স্টেডিয়াম রয়েছে,আরো ২০০টি স্টেডিয়াম নির্মাণ করার টার্গেট দিয়েছি। প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সপ্তাহ ব্যাপী অনুষ্ঠানের উদ্ধোধন ঘোষণা করেন এবং স্বেচ্ছায় রক্তদান ও দুস্থ:দের মাঝে শীতের কম্বল বিতরণ করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here