মানবিক সফল কাউন্সিলর সাইফুলইসলাম দুলাল

0
34
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : আসন্ন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কে সামনে রেখে কাউন্সিলর প্রার্থীরা ইতিমধ্যেই শুরু করেছে ধোঁরঝাপ । জনগণের কাছাকাছি পৌঁছাতে দিনরাত এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।সামাজিক রাজনৈতিক সকল অনুষ্ঠানে নিজেদের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরেছেন। আসন্ন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আবারো কাউন্সিলর প্রার্থিতা প্রকাশ করেছেন সিটি কর্পোরেশন ৩৭ নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল । নির্বাচনকে সামনে রেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও এলাকায় এখন থেকেই বেশ জোরেশোরে তিনি চালাচ্ছেন নির্বাচনী প্রচারণা ।
৩৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হাজী খলিলুর রহমান বলেন, বর্তমান কাউন্সিলর এবং ৩৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য সচিব সাইফুল ইসলাম দুলাল, এলাকার গরিব অসহায় মানুষের সুখে-দুঃখে সবসময় পাশে থাকেন তিনি। এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করছেন। ওয়ার্ডের প্রধান সমস্যা ছিল সন্ত্রাস-চাঁদাবাজ। তিনি প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূল করে জনগণকে একটি শান্তিপূর্ণ ওয়ার্ড উপহার দিতে সমর্থ হয়েছেন।
তিনি আরও বলেন,কাউন্সালার সাইফুল ইসলাম দুলাল ৩৭নং ওয়ার্ডে তিনি কাউন্সিলর হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করে এলাকাবাসীর হৃদয় জয় করে নিয়েছেন। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত তিনি ওয়ার্ডের জরাজীর্ণ রাস্তা সংস্কার, শিক্ষা বিস্তার, নিরবচ্ছিন্ন নাগরিক সেবাসহ একজন সফল কাউন্সিলরের যা করণীয় তিনি তা যথাযথ দায়িত্ব পালন করে আসছে। এমনকি তিনি নিজ অর্থায়নে এলাকার অসহায় মুসলিম ধর্মালম্বীদের জন্য করেছেন কবরস্থান।
৩৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা জালাল উদ্দিন সরকার বলেন, তাকেই আবারও আগামী নির্বাচনে জয়যুক্ত করবেন।আমি সবসময় একটা কথা মাথায় রেখেছি- জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে।
গাজীপুর সিটি করপোরেশন ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডে মানবিক সমাজ গঠনসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নগুলো অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেছেন কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল। এছাড়াও ওয়ার্ডে শিক্ষা ব্যাপক প্রসারসহ সাংস্কৃতিক বলয় তৈরি করতে চান তিনি।
সাইফুল ইসলাম দুলাল বলেন, ৩৭ নং ওয়ার্ডকে একটি ডিজিটাল ওয়ার্ড হিসেবে ঘরে তুলতে এলাকার সর্বমহলের সহযোগিতা চাই। ইতিমধ্যেই আমার নির্বাচন এলাকায় ৩৭ নং ওয়ার্ডের শিক্ষা-সংস্কৃতি ও খেলাধুলায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করেছি। তরুণ-যুবকদের মাদক থেকে ফিরিয়ে কর্ম ও শিক্ষামুখী করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করেছি।
তিনি আরও বলেন, শিল্পী অধ্যুষিত ৩৭ নং ওয়ার্ডের চুরি ছিনতাই ও সন্ত্রাস চাঁদাবাজি , ভূমিধস ঘটনা ঘটতো। এসব ঘটনা প্রতিহত করতে আমাদের পুরো ওয়ার্ড সিসিটিভি ক্যামেরার আওতাভুক্ত করার চেষ্টা করছি। বর্তমানে এই এলাকায় চুরি চিন্তায় ও চাঁদাবাজির মতন ঘটনা নেই বলেই চলে। আগামী নির্বাচনে এলাকাবাসী যদি যোগ্য মনে করে আমাকে পুনরায় নির্বাচিত করে আমি এই ওয়ার্ড কে আরও উন্নত শ্রমিক বান্ধব, সন্ত্রাস চাঁদাবাদ মাদক মুক্ত উন্নত আধুনিক ডিজিটাল ওয়ার্ড এলাকাবাসীকে উপহার দেবো।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here