রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্ট

0
341
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: গাজীপুর জেলার রাজেন্দ্রপুর ক্যান্টনমেন্ট থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে শালবনের ভেতরে প্রায় ৮০ বিঘা জমি নিয়ে যৌথ মালিকানায় গড়ে তোলা হয়েছে রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্ট (জধলবহফৎধ ঊপড় জবংড়ৎঃ)। বনের স্বাভাবিক সৌন্দর্য্যকে অক্ষুন্ন রাখতে এখানে পরিকল্পিতভাবে আরো বনায়ন করা হয়েছে। রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে ২৬ টি কটেজ পার্ক ছাড়াও রয়েছে বেশ কয়েকটি মাটির ঘর। এখানে আগত অতিথিরা চাইলে রিসোর্টের লেকে মাছ ধরা, নৌকা ও সাইকেল চালানো কিংবা শাক-সবজি ও ফার্ম ঘুরে দেখতে পারেন। রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে আরো রয়েছে একটি সুইমিং পুল, ম্যাসেজ পার্লার ও ক্যাফেটেরিয়া। ঘন অরণ্যের ভেতরে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা ৪ তলা বিশিষ্ট প্রতিটি ভবনের ছাদে পাখির চোখে বন পর্যবেক্ষনের জন্য রয়েছে অবজারভেশন টাওয়ার। তাই শহরের বেশ কাছে ঝুল বারান্দায় বসে বন্য প্রকৃতি আর চোখ জুড়ানো সবুজের স্বাদ নিতে চলে আসতে পারেন রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে।
প্যাকেজ:
রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে জনপ্রতি সারাদিনে জন্য রুম ভাড়া ৩০০০ টাকা এবং এতে সকালের না¯া, দুপুরের খাবার যুক্ত আছে। আর দুইজন সারাদিন থাকার জন্য ভাড়া ৪০০০ টাকা। রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে যদি একজন রাতে অবস্থান করতে চান তবে ৪০০০ টাকা খরচ পড়বে আর দুইজনের জন্য গুনতে হবে ৬০০০ টাকা। (রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে সুইমিং পুল ব্যবহারের জন্য আলাদা চার্জ দিতে হয় না। তবে দুজনের কম লোক রিসোর্টে গেলে সাধারনত রুম দেয়া হয় না, কোন ভাবে রুম ম্যানেজ করা গেলেও তখন এক্সট্রা চার্জ দিতে হয়।
খাবার:
রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে নিজস্ব জমিতে অর্গানিক সার ব্যবহারে উৎপাদিত প্রাকৃতিক খাদ্যের স্বাদ পাওয়া যায়। খাদ্য তালিকায় রয়েছে ভাত, মাছ, মাংস, সবজি এবং ডাল।সময়ের আবর্তে উল্লেখিত ভাড়া কম বেশি হতে পারে।)
কোথায় এবং কিভাবে যাবেন:
নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা থাকলে সহজেই রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে পৌঁছাতে পারবেন। আর যদি নিজস্ব যান না থাকে তবে ঢাকা থেকে অনন্যা সুপার, অনন্যা ক্লাসিক, এগারোসিন্দুর কিংবা রাজেন্দ্রপুর ক্যান্টনমেন্টের দিকে ছেড়ে আসা যেকোন বাসে করে ক্যান্টনমেন্ট কলেজের সামনে বাস থেকে নেমে পড়–ন। ক্যান্টনমেন্ট কলেজের থেকে সিএনজি বা অটোরিক্সা নিয়ে হাতের বা দিকের রাস্তা ধরে ৫ কিলোমিটার এগিয়ে গিয়ে গ্রিণটেক রিসোর্ট এর পাশের রাস্তা ধরে বনের মধ্যে আরও ২ কিলোমিটার প্রবেশ করলেই পৌঁছে যাবেন রাজেন্দ্র ইকো রিসোর্টে।
সীমাবদ্ধতা:
বনের বেশ গভীরে হওয়ায় এই রিসোর্টে তেমন কোন অতিরিক্ত খাবার পাওয়া যায় না। গহীণ বনে অবস্থিত এ রিসোর্টে বিশেষ কোন নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here