শ্রীপুরের উপজেলা নির্বাচনে জনপ্রিয়তায় শীর্ষে আব্দুল জলিল

0
367
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: ফেব্রুয়ারির ১ম সপ্তাহে তফসিল তার পর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট।
জাতীয় নির্বাচনের পর সব জায়গায় বইছে উপজেলা নির্বাচনের ভোটের হাওয়া। শ্রীপুর উপজেলার আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যে অনেকেই এবার দলীয় মনোনয়ন চাইছেন। ব্যানার ফেস্টুন আর পোস্টার এ ছেঁয়ে গেছে শ্রীপুর উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার, শপিংমল।
বিএনপির কেউ প্রার্থী না হলেও আওয়ামী লীগে মনোনয়ন চান ১১ থেকে ১৫ জন।
সবার মধ্যে নিজের জনপ্রিয়তায় শীর্ষে আলোচনায় আছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল।
আব্দুল জলিল ১৯৮৮ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচন হন।
এরপর শ্রীপুর ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ -সভাপতি নির্বাচন হন ১৯৮৯ সালে।
তার যোগ্য নেত্রীত্বের মূল্যায়ন করে এই নেতাকে ১৯৯৫ সালে উপজেলা আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্বাচিত করেন।
এরপর আর আব্দুল জলিলকে পিছন ফিরে আর তাকাতে হয়নি।
১৯৯৮ সালে শ্রীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক ও ২০১৬ সালে উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি নির্বাচিত হন।
সর্বশেষ ২০১৭ সালে গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য নির্বাচিত হন আব্দুল জলিল।
তিনি উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের তিনবার চেয়ারম্যা নির্বাচিত হয়েছিলেন ।
জনসাধারণের মধ্যে জনপ্রিয় এ নেতা গত ১৯৯৭ Ñ ২০০২ সালে প্রথম তেলিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এর পর জনপ্রিয় এই নেতা ২০০৪- ২০০৮ ও সর্বশেষ ২০০৯- ২০১৪ সালে সর্বশেষ তেলিহাটি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের সেবা করে নিজেকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে জন সেবাই নিজেকে উৎসর্গ করেন। ২০১০ সালে গাজীপুর জেলার প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তার এর শেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
২০১৬ সালে উদ্ভাবনী উৎসাহিত করণ সম্মাননার ভূষিত হন আব্দুল জলিল।
নিজ এলাকায় ব্যাপক জনপ্রিয় আব্দুল জলিল জনগণের সাথে মিলে-মিশে এলাকার উন্নয়ন করে যাচ্ছেন।
আশ্রয়ন প্রকল্প, উপজেলা পরিষদের উন্নয়ন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাটের উন্নয়নসহ উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়নে তিনি অবদান রেখে চলেছেন।
উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে পূনরায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিতে চান তিনি। পূনরায় উপজেলা চেয়ারম্যান হয়ে সমগ্র উপজেলার মানুষের দুঃখ-কষ্ট দূর করতে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। তিনি বলেন, শ্রীপুর উপজেলার উন্নয়ন করে দেশরত্ন শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গঠনে ভূমিকা রাখতেই উপজেলা চেয়ারম্যান হতে চাই পূনরায় ।’

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here