শ্রীপুরে ‘সাদা ইয়াবা’ ও গাড়িসহ তিন কারবারি গ্রেপ্তার

0
236
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক: গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে একটি প্রাইভেটকার ও সাদা রঙের ইয়াবা বড়িসহ তিন মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে জেলার ডিটেকটিভ বাঞ্চের (ডিবি) সদস্যরা।
উপজেলার গোসিংগা ইউনিয়নের কর্নপুর বন্যাদিঘীরপাড় থেকে বুধবার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের সময় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
“তাদের কাছ থেকে মাদক কারবারে ব্যবহৃত সাদা রঙের একটি টয়োটা এক্সিও গাড়ি (ঢাকা মেট্টো-গ-৩৪-১২১৩) জব্দ করা হয়েছে।”
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- কর্নপুর বন্যাদিঘীরপাড় এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মো. ফরিদ হোসেন (২৫), খিলপাড়া এলাকার রাজু আহম্মেদের ছেলে রফিকুল ওরফে রাফিকুল ইসলাম (৩৫), পাচুলটিয়া এলাকার আব্দুল রশিদের ছেলে আব্দুল কাইয়ুম (২৫)।
তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) শ্রীপুর থানায় মামলা (নম্বর ৬৫) হয়েছে।
ডিবি জানায়, ‘মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের খবরে সেখানে অভিযান চালানো হয়। ডিবির উপস্থিতি টের পেয়ে গাড়ি রেখে পালিয়ে যাওয়ার সময় তিনজনকে গ্রেপ্তার করলেও খোঁজেখানি এলাকার আবু তাহের দৌড়ে (৩৫) পালিয়ে যায়। তাকে মামলায় চার নম্বর আসামি করা হয়েছে।
এজাহারের তথ্যমতে, “আসামি ফরিদের প্যান্টের পকেটে ২৫ পিস সাদা রঙের ও ২৫ পিস লালচে ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়। আসামি রফিকুলের দেহতল্লাশী করে ৫ পিস লালচে ইয়াবা পাওয়া যায়। তাদের কাছ থেকে পাওয়া শূন্য দশমিক ৫ গ্রাম ওজনের ৫৫ পিস ইয়াবা বড়ির বাজার মূল্য প্রায় ১৬ হাজার ৫ শ টাকা।”
‘মামলায় ওই গাড়ির চালক কাইয়ুমকে মাদক বিক্রয়ের সহযোগী এবং অবৈধ কাজে ব্যবহৃত গাড়িটি মামলায় আলামত হিসেবে দেখানো হয়েছে।’
“প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে তারা পাইকারি মাদক কারবারি বলে ডিবির কাছে স্বীকার করেছেন। অর্ডার পেয়ে ভাড়া করা ওই গাড়ি দিয়ে বিভিন্ন স্থানে সেবীদের কাছে তারা মাদক পৌঁছে দিত।”
গ্রেপ্তার তিনজনকে আজ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযানে জেলার ডিটেকটিভ বাঞ্চের (ডিবি) এসআই মো. নেছার উদ্দিন, এসআই মো. সরোয়ার হোসেন, এএসআই মোখলেছুর রহমান ও এএসআই মো. আনোয়ার হোসাইন ছাড়াও দুই কনস্টেবল অংশ নেন।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here