কাজের দুনিয়ায় সহিংসতা ও হয়রানী বন্ধ কর

0
25
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর সংবাদ বি : আগামী ০৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে আমরা বাংলাদেশসহ বিশ্বের সব নারীকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আজ ০৫ মার্চ’২০২১। ন্যাশনাল ওয়ার্কার্স ইউনিটি সেন্টার ও গ্রীণ বাংলা গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডাশনের যৌথ উদ্যোগে কর্মক্ষেত্রে নারীর প্রতি সহিংসতা ও হয়রানির প্রতিরোধে নারী সমাবেশ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত।
কর্মক্ষেত্রে শ্রমজীবি নারীদের প্রতি হয়রানি এবং নির্যাতন প্রতিদিনকার ঘটনা। তবে দিন দিন এটি আরো তীব্রতর কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা এবং হয়রানি শ্রমিককে আরো বেশী নাজুক করে ফেলে, বিশেষ করে যাদের সংঘবদ্ধ হওয়ার ও যৌথ দর কষাকষির সুযোগ কম, যেখানে শোভন কাজের সুযোগ নেই এবং যেখানে শ্রমিকরা কম মজুরি পায় কিংবা ন্যায় বিচার প্রাপ্তির সুযোগ থেকে বঞ্চিত। কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা ও হয়রানির ফলে শ্রমিকদের মধ্যে এক ধরনের মানষিক চাপ তৈরি হয়, ফলে শ্রমিক কর্মস্পৃহা হারায়। অনেক ক্ষেত্রে শ্রমিক প্রতিশোধ পরায়ন হয় এবং যারফলে উৎপাদনশীলতা হ্রাস পায়।
কর্মক্ষেত্রে নারী ও পুরুষের হয়রানি এবং নির্যাতন প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট পক্ষসমূহের সুপারিশমালা এবং মানদন্ড নির্ধারণ করার লক্ষ্যে ধারাবাহিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে আইএলও ২০১৯ এর মার্চ মাসে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে যা ‘ব্লু’ রিপোর্ট নামে পরিচিত। রির্পোটে কর্মক্ষেত্রে হয়রানি ও নির্যাতন বন্ধে সরকার, মালিক এবং শ্রমিক সংগঠন সমূহের বিভিন্ন দায়িত্ব এবং একই সাথে সরকার, মালিক এবং শ্রমিক প্রতিনিধি ডেলিগেশনে নারী-পুরুষ সমতা নিশ্চিত করার কথা বলা হয়। তাই বাংলাদেশ সরকারকে কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা ও হয়রানি বন্ধে আইএলও কনভেনশন ১৯০ অনুস্বাক্ষর করার জোর দাবী জানান।
নারী সমাবেশে ন্যাশনাল ওয়ার্কার্স ইউনিটি সেন্টার ও গ্রীণ বাংলা গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি সুলতানা বেগম এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইলিয়াস, যুগ্ম সম্পাদক খাদিজা রহমান, সহ-সভাপতি সেলিনা হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফরিদ উদ্দীন, শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক রোজিনা আক্তার সুমি, দপ্তর সম্পাদক রাবেয়া ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মোঃ তাহেরুল ইসলাম, কার্যকরী সদস্য সুফিয়া বেগম, কল্পনা আক্তার, সাথী আক্তার, মিরপুর আঞ্চলিক কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন, আহম্মদ ফ্যাশন্স শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ সুমন হোসেন, ব্যাবিলন গার্মেন্টস ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মিষ্টার শাহ, সদস্য ট্রপি, আছিয়া বেগম মারিয়া আক্তার, কোহিনুর আক্তার, আশুরা বেগম, মোঃ নাসির, মোঃ আজিম হোসেন, প্রমুখ।
অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন টেক্সটাইল গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তপন সাহা, গার্মেন্টস টেইলার্স ওয়ার্কার্স লীগ মহানগর সভাপতি মীর কবির হোসেন, জাতীয় প্রগতিশীল গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রাজা, জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক জোট বাংলাদেশ এর সভাপতি মোঃ মাহতাব উদ্দিন সহিদ, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মোঃ রুহুল আমিন হাওলাদার ।
কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানি প্রতিরোধে কয়েকটি দাবি তুলে ধরা হয়।
১. আইএলও কনভেনশন ১৯০ অনুসমর্থন কর।
২. যৌন হয়রানি প্রতিরোধে হাইকোর্টের নির্দেশনা বাস্তবায়ন।
৩. কর্মক্ষেত্র ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ কমিটি গঠন ।
৪. কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ আইন প্রণয়ন।
৫. মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস ঘোষণা কর।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight − two =