বিএসএমএমইউ হাসপাতালে গবেষক চিকিৎসক-ছাত্রছাত্রীদের মিলনমেলা

0
40
728×90 Banner

ডেইলি গাজীপুর প্রতিবেদক : বর্তমান সময়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানে গবেষণা শুধু জরুরিই নয়, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিষয়ক গবেষণা অপরিহার্য এবং এর কোনো বিকল্প নাই। করোনা মহামারীসহ বিভিন্ন ধরণের ফ্লু, ভাইরাস এর প্রাদুর্ভাব এই গবেষণার প্রয়োজনীয়তাকে আরো অত্যাবশকীয় করে তুলেছে। রোগ প্রতিরোধ, নিত্য নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবন ও ব্যবহার সম্পর্কে জ্ঞান লাভ, ভ্যাকসিন আবিস্কার, সর্বাধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে অবহিত হওয়া, রোগের ধরণ, গতি, প্রকৃতি সম্পর্কে জানা, চিকিৎসাসেবা ও রোগীর প্রয়োজনে নিত্যনতুন চিকিৎসা পদ্ধতি ও ওষুধ আবিষ্কারসহ ইত্যাদি প্রয়োজন মেটাতে চিকিৎসা বিজ্ঞানে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন গবেষণা এখন সময়েরই দাবি। সে লক্ষ্যই পূরণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বসেছিল গবেষক চিকিৎসক-ছাত্রছাত্রীদের মিলনমেলা।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিলন হলে আজ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ইং তারিখে অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চতর চিকিৎসা শিক্ষায় অধ্যয়নরত গবেষক চিকিৎসক-ছাত্রছাত্রীদের মাঝে স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা বিষয়ক গবেষণা অনুদান প্রদান করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. দীন মোঃ নূরুল হক (চৎড়ভ. উৎ. উববহ গড়যফ. ঘড়ড়ৎঁষ ঐঁয়) উপস্থিত থেকে মোট ৪ শত ৩৮ জন ছাত্রছাত্রীদের হাতে ২০২৩-২০২৪ অর্থ বছরের গবেষণার (থিথিস গ্রান্টের) চেক তুলে দেন। সর্বমোট ৫ কোটি ৩১ লক্ষ ৪৩ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়। সর্বোচ্চ একজন চিকিৎসককে গবেষণার জন্য দেড় লক্ষ টাকার গবেষণা মঞ্জুরী প্রদান করা হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ সহকারী অধ্যাপক ডা. হেলাল উদ্দিন এর সঞ্চালনায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই অনুষ্ঠানে অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ মনিরুজ্জামান খান, উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান (চৎড়ভ. উৎ. গড়যধসসবফ অঃরয়ঁৎ জধযসধহ), ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল, রেজিস্টার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মোঃ হাবিবুর রহমান দুলাল প্রমুখসহ গবেষক শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
অত্যন্ত সময় উপযোগী এই আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. দীন মোঃ নূরুল হক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক, ছাত্রছাত্রীদের গবেষণাতেও নাম্বার ওয়ান হতে হবে। গবেষণার মান আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হতে হবে। গবেষণা হতে হবে সম্পূর্ণ। আজ আমি সতিই অভিভূত। এটা একটা অবিশ্বাস্য ঘটনা। এক সাথে এত সংখ্যক চিকিৎসক-ছাত্রছাত্রীকে গবেষণার জন্য অনুদান প্রদান করা বিশ্বে বিরল। এটা গিনেস বুকে স্থান পাওয়া দাবি রাখে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা গবেষণার প্রতি অত্যন্ত আন্তরিক। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসনও গবেষণার ক্ষেত্রে সব ধরণের সহযোগিতা করতে সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে এবং গবেষণার ক্ষেত্রে অব্যাহতভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। গবেষণার মান বৃদ্ধি, সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধিসহ গবেষণার ক্ষেত্র সম্প্রসারণে বহুমুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। এই সুযোগকে কাজে লাগানোর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক, ছাত্রছাত্রীদের বিশেষভাবে আহ্বান জানাচ্ছি। যাতে করে বিশ্বমানের গবেষণা সম্পন্ন করে রোগীদের কল্যাণ করার সাথে সাথে বিশ্বের বুকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়কেও অনন্য উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত করা যায়।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here