শীতের সকালে ডিয়াবাড়ি মেট্রোরেল স্টেশনে মানুষের ঢল

0
23
728×90 Banner

মোল্লা তানিয়া ইসলাম তমাঃ শীতের সকালে ঘন কুয়াশা আর হাড়কাঁপানো শীত উপেক্ষা করেই বহুকাঙ্ক্ষিত মেট্রোরেলে চড়ার জন্য হাজারো মানুষের ঢল নেমেছিল উত্তরার ডিয়াবাড়ি মেট্রোরেল স্টেশনে সকল প্রকার প্রতিক‚লতা পেরিয়ে তাঁদের অপেক্ষা বহুকাঙ্ক্ষিত মেট্রোরেলে চড়ার । বুধবার উদ্বোধনের পর সাধারণ যাত্রী নিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে মেট্রোরেলের চলাচল শুরু হয়েছে । সকাল আটটার দিকে আগারগাঁও ও উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে সাধারণ যাত্রী নিয়ে প্রথম ট্রেন ছাড়ে । প‚র্বঘোষণা অনুযায়ী সকাল আটটা থেকে টিকিট বিক্রির কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু উৎসুক জনতা তারও আগেই স্টেশনের সামনে জড়ো হতে থাকেন। সকাল পৌনে আটটার দিকেই লম্বা লাইন পড়ে যায় স্টেশনের সামনে। বেলা বাড়তেই বাড়তে থাকে মানুষের ভিড়। সকাল ৯টার দিকে উত্তরা উত্তর মেট্রোরেল স্টেশনে সরেজমিন দেখা যায়, স্টেশনের সামনে দুটি প্রবেশ পথ । দুটির সামনেই যাত্রীদের দীর্ঘ সারি। সবাই ট্রেনের টিকিট কাউন্টারের সামনে যাওয়ার অপেক্ষা করছেন। তাঁদের কেউ চাকরিজীবী, কেউ শিক্ষার্থী, কেউ উৎসুক জনতা। মেট্রোরেলের উদ্বোধনী যাত্রায় যাত্রী ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার ছোট বোন শেখ রেহানা, মন্ত্রিপরিষদের সদস্যসহ নানা শ্রেণি-পেশার ২০০ মানুষ । ঢাকায় মেট্রোরেল নির্মাণ পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) কর্তৃপক্ষের ঘোষণা অনুযায়ী, সকাল থেকে সাধারণ মানুষ টিকিট কেটে মেট্রোরেলে উঠতে পারছেন। ডিএমটিসিএলের ঘোষণা অনুযায়ী, প্রথমদিকে মেট্রোরেল চলবে সীমিত পরিসরে, সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। মাঝপথে কোথাও থামবে না। প্রথমদিকে ১০ মিনিট পরপর ট্রেন চলবে। আপাতত প্রতি মঙ্গলবার বন্ধ থাকবে মেট্রোরেল। ২৬ মার্চ থেকে যাত্রীর অভ্যস্ততার জন্য ধাপে ধাপে পথের সাতটি স্টেশনে যাত্রাবিরতি করবে যাত্রী ওঠানামার জন্য। তখন ১৭ মিনিট সময় লাগবে। এর মধ্যে যাত্রা বিরতির ১০ মিনিট। ট্রেনের সর্বোচ্চ ধারণক্ষমতা ২ হাজার ৩০৮ জন হলেও আপাতত ২০০ যাত্রী নিয়ে চলবে। ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে উত্তরা থেকে মতিঝিল এবং ২০২৫ সালে মতিঝিল থেকে কমলাপুর পর্যন্ত চলবে মেট্রোরেল। উত্তরা থেকে মতিঝিলে যেতে ৩৮ মিনিট লাগবে। ঘণ্টায় ৬০ হাজার অর্থাৎ দিনে ৫ লাখ যাত্রী মেট্রোরেলে চলাচল করতে পারবেন। মেট্রোরেলে কিলোমিটারে ভাড়া ৫ টাকা। মেট্রোরেলে সর্বনি¤œ ভাড়া ২০ টাকা। দিয়াবাড়ী থেকে আগারগাঁওয়ের ভাড়া ৬০ টাকা। কমলাপুর পর্যন্ত ভাড়া হবে ১০০ টাকা। শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস নেই। ভাড়া লাগবে না যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তিন ফুটের কম উচ্চতার শিশুদের। স্মার্ট কার্ডে ভাড়া পরিশোধ করলে ১০ শতাংশ ছাড় পাবেন যাত্রীরা। বিনা ভাড়ায় বা অতিরিক্ত ভ্রমণ করলে ১০ গুণ জরিমানা গুনতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email
728×90 Banner

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here